Alexa হাতে মেহেদী দিতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হলো স্কুলছাত্রী

হাতে মেহেদী দিতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হলো স্কুলছাত্রী

ভোলা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০৭:২৭ ১২ আগস্ট ২০১৯   আপডেট: ০৯:৩৫ ১৮ আগস্ট ২০১৯

ছবি: প্রতীকী

ছবি: প্রতীকী

ভোলায় ঈদের আগের রাতে হাতে মেহেদী দিতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছে এক স্কুলছাত্রী। তাকে মুখ-হাত-পা বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছে স্থানীয়রা।

ধর্ষিতার পরিবার জানায়, রোববার রাতে বাবার কিনে দেয়া মেহেদী নিয়ে দুঃসম্পর্কের এক আত্মীয়ের বাড়ি যায় ওই কিশোরী ও তার বোন। এ সময় ওই আত্মীয়ের বাড়ির ভাড়াটিয়া ভোলা আদালতের মুহুরী আল আমিন তাকে ডেকে ঘরে নিয়ে যায়। পরে তার মুখ-হাত-পা বেঁধে ধর্ষণ করে আল আমিন ও তার সহযোগী মঞ্জুর আলম। ওই ছাত্রীর চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে ধর্ষকরা পালিয়ে যায়।

ভোলা সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. মমিনুল ইসলাম বলেন, গোপনাঙ্গ থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ হচ্ছে। ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে। ধর্ষিতার বয়সও কম। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় রাতেই তাকে বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ভোলা সদর থানার ওসি ছগির মিঞা বলেন, ধর্ষক আল-আমিন ও মঞ্জুর আলম পলাতক রয়েছেন। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর

Best Electronics
Best Electronics