হলিউডের বিখ্যাত সিনেমাগুলোর হাস্যকর কিছু ভুল

হলিউডের বিখ্যাত সিনেমাগুলোর হাস্যকর কিছু ভুল

খালিদ মাহমুদ খান  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৩:৩০ ২২ মে ২০১৯   আপডেট: ১৫:০৫ ২২ মে ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

হলিউড, বলিউড, টলিউড কিংবা ঢালিউড, সিনেমা প্রেমীদের কাছে চেনা কয়েকটি নাম। তবে এদের মধ্যে হলিউডেরই সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়তা রয়েছে তাদের অ্যাকশনধর্মী, রোমান্টিক, ট্র্যাজেডি এবং গ্রাফিক্সনির্ভর সফল সিনেমা নির্মাণের সুবাদে। তবে তারপরেও হলিউডের কিছু বিগ বাজেট ছবিতে করা কিছু হাস্যকর ও মজার ভুল দর্শকদের আশ্চর্য করবে নিশ্চিতভাবেই। তবে এসব ভুলের মধ্যে বড় বড় প্রোডাকশন হাউজের ছবিগুলোতে ভুলের সংখ্যা একটু বেশিই। তবে চলুন জেনে আসি এমন কিছু বিশেষ সিনেমার কয়েকটি হাস্যকর ভুল সম্পর্কে- 

ব্রেভহার্ট

জনপ্রিয় মেল গিবসন ড্রামা বার বার সমালোচনার মুখে পড়েছিল ব্রেভহার্ট সিনেমাটিতে অনেক অপেশাদাসূলভ ভুল করার কারণে। এর মধ্যে একটি ভুল হলো, যুদ্ধের জন্য দৌড়রত অবস্থায় নায়কের হাতে যে পাথরের হাতিয়ারটা ছিলো তা স্বাভাবিকভাবেই লোহার তৈরি হবার কথা কিন্তু স্ক্রিনে দেখা যায় হাতিয়ারটি রাবারের মতো দোল খাচ্ছে। এই মুভিতেই আরো একটি হাস্যকর ভুল ছিলো যেখানে মুভির নায়ক সৈন্যসামন্ত নিয়ে যাত্রা করছিলো তখনি পেছন থেকে একটি সাদা গাড়ির অবয়ব স্পষ্ট ফুটে উঠলো। এত প্রাচীন সময়ের একটি সিনেমাতে এরকম আধুনিক সাদা গাড়ি দেখতে পাওয়া মোটেই স্বাভাবিক নয়। এছাড়াও এই মুভিতেই দেখা যাচ্ছিল একজন মানুষ পেছন থেকে মাথায় আধুনিক টুপি পরে হাঁটছিলো যা তখনকার ফ্যাশনের সাথে কোনোভাবেই সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়৷ এছাড়াও আরেকটি দৃশ্যে মেল গিবসনের হাতে কোনো তরবারিই দেখা যাচ্ছিলনা কিন্তু হঠাৎ করেই তার হাতে জাদুর মতো করে একটি তরবারি চলে আসলো যা ছিলো সত্যিই হাস্যকর।

ব্যাটম্যান ভার্সেস সুপারম্যান

এই ছবির একটি দৃশ্যতে সুপারম্যান মারা যায় কিন্তু মারা যাওয়ার সময় তার চোখ খোলা ছিলো যেটা স্বাভাবিক কিন্তু যখন ব্যাটম্যান সুপারম্যানের কাছে আসে তখন ব্যাটম্যানের চোখ আবার কীভাবে বন্ধ হয়ে গেলো সেটাই প্রশ্ন৷ এত বড় একটি ভুল পরিচালক কিভাবে করেন! 

জুরাসিক

জুরাসিক সিনেমাতে একটি দৃশ্য ছিলো যেখানে ডাইনোসর রান্নাঘরে ঢুকছিলো এবং পাশেই ডাইনোসরের ভয়ে ছোট দুইটি বাচ্চা লুকিয়েছিলো। এই দৃশ্য সত্যিই ভয়ানক ছিলো কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই দেখা যাচ্ছিল কেউ একজন পেছন থেকে হাত দিয়ে ডাইনোসরকে ধরতে যাচ্ছিল এবং যেটি স্পষ্টতই ক্যামেরায় ধরা পড়েছিল অধিকাংশ দর্শকের কাছে। 

গ্ল্যাডিয়েটর 

ছবির চরিত্রায়ন প্রায় দুই হাজার বছর আগের সময়ের আদলে নির্মিত। যেখানে যুদ্ধ চলাকালীন সময়ে অভিনেতা এবং উপস্থিত দর্শকদের পোশাকের সাথে সামঞ্জস্যহীন একজন প্রতিবেদক চিত্র ধারণ করতে গিয়েছিল, যেটা ছিলো সত্যিই হাস্যকর। হয়তো সেই ব্যাক্তিটি ছবিটির সরাসরি সম্প্রচার করছিলো এবং সেখানে দেখা যায় একজন মানুষ প্লাস্টিকের বোতলে পানি নিয়ে যুদ্ধ দেখতে এসেছে। ২০০০ বছর আগে প্লাস্টিকের বোতলের কথা চিন্তা করাই তো অসম্ভব। এছাড়াও সকল যোদ্ধাদের পায়েই কিন্তু অত্যাধুনিক সোলের জুতা দেখা যাচ্ছিল যা সত্যিই সিনেমাটির চরিত্রায়নের সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। ঐতিহাসিকদের মতে, গ্ল্যাডিয়েটরের যুদ্ধ ছিলো মূলত রেসলিংভিত্তিক যেখানে কোনো অস্ত্রের প্রচলন ছিলোনা। কিন্তু ছবিটিতে অস্ত্র নিয়েও যুদ্ধ করতে দেখা যায়৷ মুভির শেষ দিকে যখন ম্যাক্সিমাস মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছিল তখন আশ্চর্যজনকভাবে তার মাথায় একটা বালিশের মতো দেখা যাচ্ছিল। পরিচালকই হয়তো বলতে পারবেন এই বালিশ কোথা থেকে এলো!

আয়রন ম্যান

আয়রন ম্যানের দ্বিতীয় পর্বের অংশে নাতাশা খুব চতুরতার সাথে তার ছেলেবন্ধুকে ফেলে দিয়েছিলো। কিন্তু ফেলে দেয়ার সময় নাতাশা নিজেও যখন ডিগবাজি খাচ্ছিলো তখন স্পষ্ট ক্যমেরায় দেখা যায় যে নাতাশার মুখ মন্ডলে অন্য একটি নারীর চেহারা দেখা যাচ্ছিল। 

ইন্ডিয়ানা জোনস রাইডারস অফ লস্ট আর্ক

এই ছবিতে অ্যাকশনগুলো ত্রিশ দশকের ছবির আদলে করা। ছবিটিতে এক পর্যায়ে ইন্ডিয়ানা জোনস কায়রো শহরে একটি বানর নিয়ে বসেছিলো এবং পেছন দিকে জিন্স টি-শার্ট পড়া একজন ব্যক্তিকে হেঁটে যেতে দেখা যাচ্ছিলো। ত্রিশ দশকের মুভিতে এইরকম জিন্স টি শার্ট পড়া ব্যক্তি দেখতে পাওয়া সত্যিই নিখাঁদ হাস্যকর ব্যাপার। 

ডেডপুল

ডেডপুল একটি স্বল্প বাজেটের সুপারহিরো সিনেমা কিন্তু এটি অল্প বাজেটে নির্মিত হলেও ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করে সিনেমাটি। এই ছবির একটি দৃশ্যে কলোসাস যখন ডেডপুলকে হ্যান্ডকাপ দিয়ে টেনে হিঁচড়ে নিয়ে যাচ্ছিল তখন ডেডপুল তার লম্বা ও শক্তিশালী হাতের কব্জি আলাদা করে ফেলে এবং তার কিছুক্ষণ পরেই তার সুপার পাওয়ারের বদৌলতে তার লম্বা বাম হাতের কব্জি আবার গজায়। কিন্তু এই দুই দৃশ্যের মধ্যে যখন ডেডপুল ব্রিজ থেকে পড়ে যায় তখন একটি অপ্রত্যাশিত ভুল দেখতে পাওয়া যায়। দৃশ্যটিতে দেখা যায়, তার বাম হাত কব্জিবিহীন কিন্তু পরের কোণ থেকে যখন ক্যামেরা ঘুরিয়ে ফেলা হয় তখন দেখা যায় তার ডান হাতের কব্জি নেই। অতঃপর যখন ডেডপুল একদম নিচে পড়ে যায় তখন আবার দেখা যায় তার বাম হাতের কব্জি নেই৷ সম্ভবত ‘মিরর ইফেক্ট’ কারসাজিতে এই ভুলটা করেছেন পরিচালক।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস