Alexa হলহলিয়া রাজবাড়ীতে মিলল প্রাচীন সভ্যতার ধ্বংসাবশেষ, এলাকায় তোলপাড়!

হলহলিয়া রাজবাড়ীতে মিলল প্রাচীন সভ্যতার ধ্বংসাবশেষ, এলাকায় তোলপাড়!

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০১:২৮ ২৬ জানুয়ারি ২০২০   আপডেট: ০৪:৪৭ ২৬ জানুয়ারি ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ভূতুড়ে দুর্গ হিসেবে পরিচিত সুনামগঞ্জের তাহিরপুরের সীমান্তবর্তী হলহলিয়া রাজবাড়ীতে পাওয়া গেছে প্রাচীন সভ্যতার আবাসিক ভবনের ধ্বংসাবশেষ। এ নিয়ে পুরো উপজেলায় চলছে তোলপাড়।

সিলেট ও চট্টগ্রাম প্রত্নতত্ত্ব অধিদফতরের আঞ্চলিক পরিচালক ড. আতাউর রহমান জানান, দুর্গের ভেতরে একাধিক সুসজ্জিত কক্ষ ও প্রবেশপথে একটি অনন্য আবাসিক ভবনের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। এছাড়া মাটির বিভিন্ন স্তরে পোড়ামাটির তৈরি বস্তুর সন্ধান মিলেছে।

স্থানীয় বাসিন্দা মাসুক মিয়া জানান, প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন পাওয়ায় হলহলিয়া দুর্গে পর্যটকদের আগমন বেড়েছে। এখানে প্রতিদিন নতুন নতুন কিছু পাওয়া যাচ্ছে শুনে ভাল লাগছে। এতে পর্যটকদের আকর্ষণ আরো বাড়বে। আশা করি আগামীতে দুর্গে আরও প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন পাবে খননকারীরা।

রাজবাড়ী ঘিরে উৎসুক জনতার ভিড়

হলহলিয়া রাজবাড়ী মূলত তাহিরপুরের প্রাচীন লাউড় রাজ্যের একটি দুর্গ। স্থানীয়দের কাছে এটি ভূতুড়ে বাড়ি হিসেবে পরিচিত। সরকারিভাবে তালিকাভুক্ত করে প্রত্নতাত্ত্বিক খননের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। ৯ জানুয়ারি খনন কাজ শুরু করে প্রত্নতত্ত্ব অধিদফতর।

খনন ও অনুসন্ধান দলের সদস্যরা হলেন ফিল্ড অফিসার মো. শাহীন আলম, ময়নামতি জাদুঘরের কাস্টোডিয়ান মো. হাফিজুর রহমান, আঞ্চলিক দফতরের গবেষণা সহকারী মো. ওমর ফারুক, সিনিয়র ড্রাফটসম্যান মো. সিরাজুল ইসলাম, আলোকচিত্রী মো. নুরুজ্জামান মিয়া, সার্ভেয়ার চাইথোয়াই মারমা, পটারি রের্কডার ওমর ফারুক, অফিস সহায়ক লক্ষণ দাস।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর