Alexa হবিগঞ্জে স্কুলছাত্রী ‘ধর্ষকের’ স্বীকারোক্তি

হবিগঞ্জে স্কুলছাত্রী ‘ধর্ষকের’ স্বীকারোক্তি

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০৯:৪৫ ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯   আপডেট: ০৯:৪৯ ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

হবিগঞ্জের চুনারুঘাটের সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণের স্বীকারোক্তি দিয়েছেন অভিযুক্ত মানিক মিয়া।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সুলতান উদ্দিন প্রধানের আদালত মানিকের ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি নেয়।

মানিক মিয়া চুনারুঘাটের রহমতাবাদের ষাড়েরকোনা গ্রামের ছিদ্দিক আলীর ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে চুনারুঘাট থানার ওসি শেখ নাজমুল হক জানান, জবানবন্দি নেয়া শেষে মানিক মিয়া ও মামলার অন্য আসামি একই উপজেলার আমতলী গ্রামের আবুল হাসিমের ছেলে রুবেল মিয়া, রহমতাবাদ ষাড়েরকোনা গ্রামের নওশেদ আলীর ছেলে হারিছ মিয়াকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রীর জবানবন্দি শেষে বাবার জিম্মায় দেয়া হয়েছে। 

বুধবার বিকেলে জেলার মাধবপুরের ১০ম শ্রেণি পড়ুয়া এক ছাত্রী প্রেমিকের সঙ্গে সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে ঘুরতে যায়। এক পর্যায়ে ছয় বখাটে প্রেমিককে আটকে রেখে স্কুলছাত্রীকে গহীন জঙ্গলে নিয়ে গণধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। ঘটনার পর স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা। পরে বিষয়টি থানা অবগত করলে রাতেই সাঁড়াশি অভিযান চালিয়ে তিন অভিযুক্তকে আটক করে পুলিশ। আটকের পর  ভুক্তভোগী বাদী হয়ে ছয় ধর্ষকের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ