হবিগঞ্জে বাড়ছে পানি, ডুবছে রাস্তা-ঘাট

হবিগঞ্জে বাড়ছে পানি, ডুবছে রাস্তা-ঘাট

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:৫৯ ১১ জুলাই ২০২০   আপডেট: ১৫:৩৫ ১১ জুলাই ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

হবিগঞ্জের হাওর অঞ্চল হিসেবে খ্যাত আজমিরীগঞ্জ, বানিয়াচং ও লাখাই উপজেলায় নদ-নদীর পানি বেড়েই চলেছে।

গত কয়েক দিনের টানা বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পানির কারণে ক্রমেই তা বৃদ্ধি পাচ্ছে। আর এতে করে ওই তিনটি উপজেলার নিম্নাঞ্চলের রাস্তা-ঘাটসহ বেশ কিছু বাড়ি-ঘর তালিয়ে যাচ্ছে।

তবে হবিগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের দাবি, কিছু কিছু নিচু স্থানে পানি উঠলেও বড় ধরনের বন্যার কোনো আশঙ্কা নেই। বৃষ্টি কমে গেলেই নদীর পানি স্বাভাবিক অবস্থায় চলে আসবে।

শুক্রবার থেকে শুরু হওয়া বৃষ্টি শনিবার দুপুর পর্যন্ত এক টানা জেলার উপর দিয়ে বয়ে যায়। এতে করে আজমিরীগঞ্জের কুশিয়ারা কালনি ভেড়ামোহনা ও বশিরা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে ওই এলাকার রাস্তা-ঘাটসহ বেশ কিছু নিম্নাঞ্চল তলিয়ে যেতে শুরু করে। 

এছাড়া বানিয়াচং উপজেলার পাহারপুর, মুরাদপুর, বিথঙ্গল, লাখাই উপজেলার ভবানীপুর, স্বজন গ্রামসহ আরো বেশ কিছু এলাকার কোথাও কোথাও বাড়িতেও পানি প্রবেশ করেছে। হবিগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের কাকাইলছেও চৌধুরী বাজার এলাকায় নির্মিত প্রায় ১ কিলোমিটার বাজার রক্ষা বাঁধটি পানির নিচে তলিয়ে গেছে। রাস্তাঘাট তলিয়ে যাওয়ায় দুর্ভোগে পড়েছেন ওই এলাকার হাজারো সাধারণ জনগণকে।

স্থানীয়রা জানান, গত কয়েক দিন ধরে কুশিয়ারা কালনি ভেড়ামোহনা ও বশিরা নদী ও খোয়াই নদীতে ক্রমাগত পানি বেড়েই চলেছে। আর এতে করে বন্যার আশঙ্কা করছেন তারা। এছাড়া রাস্তাঘাট তলিয়ে যাওয়ায় দুর্ভোগে পড়েছেন তারা।

খালেক আহমেদ ও বাছির মিয়াসহ একাধিক ভুক্তভোগী জানান, একদিকে টানা বৃষ্টি অন্যদিকে সুনামগঞ্জ জেলার বন্যার পানি দিরাই শাল্লা হয়ে হাওর এলাকায় আজমিরীগঞ্জ হয়ে বানিয়াচঙ্গের হাওরে প্রবেশ করছে। যার ফলে পানি ক্রমাগত বাড়ছে। আর এতে রাস্তা-ঘাটসহ ফসলি জমির ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি হচ্ছে। এছাড়া অনেক স্থানে শাক-সবজি ও ধানের চারা নষ্ট হয়ে গেছে।

হবিগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের অতিরিক্ত নির্বাহী প্রকৌশলী মোহন লাল সরকার জানান, টানা বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পানির ফলে নদী ও হাওরে পানি বাড়ছে। তবে বড় ধরনের কোনো বন্যার আশঙ্কা নেই।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ