সৎকারের এক মাস পর বাড়িতে হাজির মৃত ব্যক্তি!

সৎকারের এক মাস পর বাড়িতে হাজির মৃত ব্যক্তি!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:২৮ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

এক মাস আগে মৃত ভূষণচন্দ্র পালের সৎকার হয়। নিয়ম অনুযায়ী হয় শ্রাদ্ধানুষ্ঠান। বাড়িতে চলছে পরিবারের বড় সদস্য হারানোর শোক। তবে হঠাৎ মৃত ওই ব্যক্তি বাড়িতে হাজির হলে আঁতকে উঠেন পরিবারের লোকজন। আর এ ঘটনায় রীতিমতো হতচকিত হন প্রতিবেশীরা।

শুক্রবার রাতে ভারতের উত্তর ২৪ পরগনার নৈহাটির সাহেব কলোনি মোড়ের পাশের পূর্নানন্দপল্লিতে এমন চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ জানায়, গত বছরের নভেম্বরের ১০ তারিখ থেকে মানসিক ভারসাম্যহীন ভূষণচন্দ্র পাল নিখোঁজ হন। মাস খানেক খোঁজাখুঁজির পর থানায় জিডি করেন পরিবারের সদস্যরা। জিডির কিছুদিন পর একটি অজ্ঞাত পরিচয়ের মরদেহ উদ্ধার করে নৈহাটি হাসপাতালে রাখে পুলিশ। খবর পেয়ে স্বজনরা ওই মরদেহকে ভূষণের বলে শনাক্ত করেন। ওই মরদেহটি ভূষণের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে পুলিশ। মরদেহটি বাড়িতে এনে সৎকার ও শাস্ত্র অনুযায়ী শ্রাদ্ধ করেন স্বজনরা।

পুলিশ আরো জানায়, শুক্রবার রাতে হঠাৎ বাড়িতে ফিরে আসেন ভূষণচন্দ্র পাল। প্রথমে পরিবারের সদস্যরা ঘাবড়ে গেলেও দ্রুত সবার জ্ঞান ফিরে। পরে বিস্তারিত জানলে পরিবারের সদস্যদের মাঝে আনন্দের বন্যা বইয়ে যায়। এছাড়া ভূষণের বাড়ি ফেরায় প্রতিবেশীরাও অনেক খুশি।

স্থানীয় কাউন্সিলর সনৎ দে জানান, মানসিক ভারসাম্যহীন ভূষণচন্দ্র পালের বদলে অজ্ঞাতপরিচয় এক ব্যক্তির মরদেহ ভুল করে শনাক্ত করে পরিবারের সদস্যরা। যার দেহ সৎকার ও শ্রাদ্ধ করা হয়েছিল।

বাড়ি ফেরা ভূষণ জানান, পথ হারিয়ে ট্রেনে চড়ে দিল্লিতে চলে যান তিনি। তবে নিজের চেষ্টায় খুঁজতে খুঁজতে আবারো বাড়িতে পৌঁছে যান।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ