Alexa স্মার্টফোনের টাইপিং হবে কিবোর্ডের মত দ্রুতগতির

স্মার্টফোনের টাইপিং হবে কিবোর্ডের মত দ্রুতগতির

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:০৮ ৭ অক্টোবর ২০১৯  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

কম্পিউটারের কিবোর্ডে টাইপ করার মতোই দ্রুতগতির হয়ে উঠছে মোবাইলের টাচ স্ক্রিনে টাইপিং। কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় ও ফিনল্যান্ডের আলটো বিশ্ববিদ্যালয়ের এক যৌথ গবেষনায় এমনটাই বলা হয়েছে।

গবেষণার ফলাফলে বলা হয়েছে, কম্পিউটারের কিবোর্ডে টাইপিং গতি প্রতি মিনিটে ৫২টি শব্দ। যার তুলনায় মোবাইলের টাচ স্ক্রিনে প্রতি মিনিটে টাইপ করা যাচ্ছে ৩৮টি শব্দ। এছাড়া প্রাপ্ত বয়স্কদের তুলনায় যাদের বয়স দশ থেকে ১৯ বছরের মধ্যে তাদের টাইপিংয়ের গতি মিনিটে আরো দশটি শব্দ বেশি। প্রতিদিন টাচস্ক্রিন মোবাইল ব্যবহারকারীদের টাইপিং দক্ষতা আরো বাড়ছে।

এক গবেষণায় ৩৭ হাজার লোক অংশগ্রহণ করে যাদের প্রত্যেককেই টাইপ করার জন্য স্মার্টফোন ও কম্পিউটারের কিবোর্ড দেয়া হয়। এই গবেষণার সহ-লেখক ইটিএইচ জুরিখের গবেষক ড. আনা ফেইট বলেছেন, যারা কম্পিউটারের কিবোর্ড ব্যবহার করেছেন তারা প্রতি মিনিটে একশ’র বেশি শব্দ এবং যারা স্মার্টফোন ব্যবহার করেছেন তারা প্রতি মিনিটে ৩৫ থেকে ৬৫ টি শব্দ লিখেছেন।

তিনি আরো বলেন, এর মধ্যে বেশিরভাগ লোকই টাইপ করার জন্য তাদের দু’টি বৃদ্ধাঙ্গুল ব্যবহার করে। তারা দিনে প্রায় ছয় ঘণ্টা টাইপিং এ ব্যয় করেন। এই দীর্ঘ টাইপিং অভিজ্ঞতায় দক্ষতা বৃদ্ধিতে কাজ করছে বিশেষ করে তরুণরা যারা সোশ্যাল মিডিয়ায় যোগাযোগ মাধ্যমে অনেক বেশি সময় ব্যয় করছে তারা টাইপিং গতি খুব দ্রুত অর্জন করেছে।

গবেষণায় দেখা যায়, ফোনে যে ব্যক্তি সবচেয়ে দ্রুতগতিতে টাইপ করেছেন তার প্রতি মিনিটে শব্দ ছিল ৮৫টি। ফোনে অটো কারেক্ট পদ্ধতি টাইপে দ্রুতগতির ক্ষেত্রে সহায়তা করলেও টাইপের শুরুতে কোন শব্দটি বসবে এটি নির্ধারণ করতে গিয়ে ব্যবহারকারী সময়ের দিক দিয়ে তুলনামূলক পিছিয়েই পড়ছেন।

ড. ফেইট বলেছেন, এটি অনেকটাই মোটর গাড়ি চালানোর মতো। কোনো প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা ছাড়াই একজন কিবোর্ডের টাইপিংয়ে দক্ষ হয়ে উঠতে পারে। তাছাড়া তিনি টাচ স্ক্রিনে টাইপের ক্ষেত্রে প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার ব্যপারটা খুব একটা প্রাসঙ্গিক মনে করেন না। অনলাইনে পরীক্ষায় গবেষণার সব উপাত্ত সর্বজনীনভাবে উপলব্ধ করা আছে। তথ্যসূত্র-বিবিসি

ডেইলি বাংলাদেশ/অরিন/এনকে