স্বামীর লিঙ্গ কেটে টাকা-গয়না নিয়ে পালাল স্ত্রী

স্বামীর লিঙ্গ কেটে টাকা-গয়না নিয়ে পালাল স্ত্রী

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:০৬ ৬ জুন ২০২০  

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

রাজশাহীর বাঘায় স্বামীর লিঙ্গ কেটে নগদ ১ লাখ আশি হাজার টাকাসহ সোনার গহনা নিয়ে পালিয়ে গেছে এক স্ত্রী। 

শুক্রবার রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিবাদের পর উপজেলার কলিগ্রামের রিপন মোল্লার স্ত্রী মিতা বেগম স্বামীর লিঙ্গ কেটে টাকা ও সোনার গহনা নিয়ে পালিয়ে যায়। 

রাত ২টার দিকে নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। তাকে উদ্ধার করে বাঘা হাসপাতালে নেয়ার পর জরুরি বিভাগের চিকিৎসক রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছেন। 

এ ঘটনায় রিপন মোল্লার সহোদর মাসুদ রানা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন বলে জানা গেছে। 

মাসুদ রানা জানান, বড় ভাই রিপন মোল্লা একজন গরু-মহিষের ব্যবসায়ী। রাত ১০ টার দিকে পারিবারিক বিষয় নিয়ে ভাইয়ের সঙ্গে ভাবির বিবাদ হয়। এ নিয়ে ভাবিকে চর থাপ্পড় মারেন তিনি। এ ঘটনার পর ভাই একটি খাটে আরেকটিতে ভাবি শুয়ে পড়েন। 

রাত ২টার দিকে বিছানার নিচে থাকা নগদ ১ লাখ আশি হাজার টাকাসহ সোনার গহনা হাতিয়ে নেয়। পরে ধারালো ব্লেড দিয়ে ভাইয়ের লিঙ্গের গোড়া কেটে জখম করে ভাবি। রিপন চিৎকার দিলে ঘর থেকে পালিয়ে যায় তার স্ত্রী। 

এ সময় বাড়ির লোকজন ঘরে গিয়ে রিপনকে রক্তাক্ত অবস্থায় দেখতে পায়। এসময় চার বছর ও ৬ মাস বয়সী দুই কন্যাকে রেখে পালিয়ে যায় রিতা। 

রিপন জানায়, স্ত্রী রিতা বেগম ধারালো ব্লেড দিয়ে লিঙ্গ কেটে টাকা ও সোনার গহনা হাতিয়ে নিয়ে পালিয়ে গেছে।  

তিনি একই উপজেলার জোতনশি গ্রামের মুকবুল হোসেনের মেয়ে। ঘটনার পর রিতা বেগম আত্মগোপন করেছে বলে জানা গেছে। 

বাঘা থানার ওসি নজরুল ইসলাম জানান, লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে