পানির বদলে দিলো অ্যাসিড, প্রাণ গেল শিশুর

পানির বদলে দিলো অ্যাসিড, প্রাণ গেল শিশুর

দিনাজপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৮:৪৫ ১ জুলাই ২০২০   আপডেট: ১৯:২৬ ১ জুলাই ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে স্বর্ণের দোকানির দেয়া অ্যাসিড মিশ্রিত পানি পানে মেফতাহুল জান্নাত নামে চার বছরের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। 

মেফতাহুল উপজেলার বিনোদনগর নন্দনপুর গ্রামের শাহাজুল ইসলামের মেয়ে। বুধবার দুপুরে উপজেলার সোমা জুয়েলার্স নামের এক স্বর্ণের দোকানে এ ঘটনা ঘটে।

অ্যাসিড মিশ্রিত পানি পানে শিশু মৃত্যুর ঘটনায় দোকান মালিক সাইফুল ইসলামকে আটক করেছে পুলিশ। সাইফুল উপজেলার রামপুর এলাকার সবুজার রহমানের ছেলে। 

শিশুর স্বজনরা জানায়, সকালে উপজেলার রামপুর বাজারের সোমা জুয়েলার্সে মা মোর্শেদা বেগমের সঙ্গে গয়না তৈরি করতে যায় মেফতাহুল। সেখানে ক্ষুধা পেলে ওই শিশুটি মায়ের কাছ থেকে বিস্কুট খেয়ে পানি চায়। এ সময় ওই দোকানের কর্মচারী গ্লাসে করে পানির পরিবর্তে স্বর্ণ পরিষ্কার করা অ্যাসিড মিশ্রিত পানি পান করতে দেয়। 

গ্লাসের অ্যাসিড মিশ্রিত পানি পান করে শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়লে দ্রুত তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়।  

নবাবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা (ভারপ্রাপ্ত) ডা. শাহাজাহান আলী বলেন, মোর্শেদা বেগম তার অসুস্থ মেয়ে মেফতাহুল জান্নাতকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। চিকিৎসা দেয়ার আগেই শিশুটি মারা যায়। 

মায়ের বর্ণনা অনুযায়ী, পানির পরিবর্তে স্বর্ণের দোকানের অ্যাসিড মিশ্রিত পানি পানে তার মেয়ের মৃত্যু হয়েছে। 

নবাবগঞ্জ থানার ওসি অশোক কুমার চৌহান বলেন, অ্যাসিড মিশ্রিত পানি পানে শিশু মৃত্যুর ঘটনায় স্বর্ণের দোকানের মালিক সাইফুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে। শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। শিশুর ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।  

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে