Alexa সেবা ক্লিনিকে প্রসূতির পর এবার নবজাতকের মৃত্যু

সেবা ক্লিনিকে প্রসূতির পর এবার নবজাতকের মৃত্যু

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:৩৫ ২০ অক্টোবর ২০১৯  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

রাজশাহীর বাঘায় সেবা ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে চিকিৎসকের অবহেলায় প্রসূতির পর এবার নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে।

নিহত নবজাতকের বাবা মিন্টু প্রামাণিক। তিনি ওই উপজেলার ফতেপুর বাউসা গ্রামের বাসিন্দা।

শনিবার রাতের এ ঘটনায় আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছেন মিন্টুর স্ত্রী আনিকাও।

আনিকার ভাই নাসির উদ্দিন জানান, মিন্টু কাজের জন্য গ্রামের বাইরে ছিলেন। তাই আনিকাকে নিজেরাই ক্লিনিকে নিয়ে যান। পরে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ছাড়াই তার সিজার করা হয়। সিজারের পর পরই নবজাতকের মৃত্যু হয়।

আনিকার মা কাজলী আক্তার জনান, আলট্রাসনোগ্রাফির রিপোর্ট অনুযায়ী ডেলিভারির তারিখ ছিল ২৭ অক্টোবর। কিন্তু পেটে বাচ্চা নড়াচড়া করায় আগেই সিজার করা হয়।

ক্লিনিকের চিকিৎসক শহিদুল ইসলাম রবিন বলেন, রোগীর স্বজনদের অনুরোধে নির্ধারিত তারিখের আগেই সিজার করতে বাধ্য হই। সিজারের সময়ই নবজাতককে মৃত পাওয়া গেছে। পরে প্রসুতির টিউমার অপারেশন করা হয়েছে।

সেবা ক্লিনিকের মালিক নাজমুল ইসলাম মুকুল জানান, নবজাতক কিভাবে মারা গেছে তা চিকিৎসক ভালো বলতে পারবেন।

বাঘা থানার ওসি নজরুল ইসলাম জানান, নবজাতকের মৃত্যুর ঘটনায় কেউ অভিযোগ করেনি। তবে খবর ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয়রা উত্তেজিত হয়ে পড়ে। তাই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সিরাজুল ইসলাম জানান, বেসরকারি ক্লিনিকগুলোতে প্রসূতি ও নবজাতকের মৃত্যু বেড়েই চলেছে। বিষয়টি সিভিল সার্জনকে জানানো হবে।

২০১৭ সালের ১ নভেম্বর একই ক্লিনিকে চিকিৎসকের অবহেলায় এক প্রসূতির মৃত্যু হয়। ওই ঘটনায় ক্লিনিক কর্তৃপক্ষকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। ২০১৮ সালে একই উপজেলার জননী ক্লিনিকেও এক প্রসূতির মৃত্যু হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর