সিফাতের জামিন মঞ্জুর

সিফাতের জামিন মঞ্জুর

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১১:০৮ ১০ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১২:২২ ১০ আগস্ট ২০২০

সাহেদুল ইসলাম সিফাত

সাহেদুল ইসলাম সিফাত

কক্সবাজারে পুলিশের গুলিতে নিহত সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খানের সহকর্মী সাহেদুল ইসলাম সিফাতের জামিন আবেদন মঞ্জুর করেছে আদালত।

সোমবার টেকনাফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না ফারাহর আদালত পুলিশের করা দুই মামলায় তাকে জামিন দেন। একইসঙ্গে সিফাতের বিরুদ্ধে করা দুটি মামলার তদন্তভার পুলিশের কাছ থেকে র‌্যাবে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

এর আগে, রোববার গ্রেফতার হওয়া সিনহার আরেক সহকারী শিপ্রা দেবনাথের জামিন মঞ্জুর করে রামুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত।

মেজর (অব.) সিনহা প্রামাণ্যচিত্র তৈরির জন্য ৩ জুলাই কক্সবাজার এসেছিলেন। এই কাজে তার সহযোগী ছিলেন স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী সিফাত, শিপ্রা রানী দেবনাথ এবং তাদের সহপাঠী তাহসিন রিফাত নুর। প্রামাণ্যচিত্রের প্রযোজক ছিলেন সিনহা। তারা সবাই উঠেছিলেন হিমছড়ি সৈকত তীরের নীলিমা রিসোর্টে।

গত ৩১ জুলাই রাতে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন সাবেক সেনা কর্মকর্তা সিনহা। এ সময় তার সঙ্গে ঘটনাস্থলে ছিলেন সিফাত। পুলিশের মামলায় সিফাতের বিরুদ্ধে পরস্পর (সিনহা ও সিফাত) যোগসাজশে সরকারি কাজে বাধা, হত্যার উদ্দেশে অস্ত্র তাক করা ও মৃত্যু ঘটানোর অভিযোগ আনা হয়েছে। ওই মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়।

এছাড়াও তারা হিমছড়ির যে রিসোর্টে ছিলেন সেখান অভিযান চালিয়ে স্ট্যামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী শিপ্রা রানী দেবনাথ ফাইনাল ইয়ারের শিক্ষার্থী তাহসিন রিফাত নূরকে আটক করে পুলিশ।

পরে রামু থানায় শিপ্রার বিরুদ্ধে মদের বোতল রাখার অভিযোগে মাদক আইনে একটি মামলা দেয়া হয়। আর তাহসিন রিফাত নূরকে মুচলেকা রেখে এক আত্মীয়ের জিম্মায় ছেড়ে দেয়া হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএইচ