Alexa সাকিব না থাকায় ভারতীয় সিকিউরিটি গার্ডের আফসোস

সাকিব না থাকায় ভারতীয় সিকিউরিটি গার্ডের আফসোস

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:১১ ১৩ নভেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৭:৪০ ১৩ নভেম্বর ২০১৯

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

বাংলাদেশের ক্রিকেট নিয়ে কথা হবে কিন্তু সাকিব আল হাসান থাকবেন না এ যেনো অসম্ভব এক বিষয়ে পরিণত হয়েছে। দেশের ক্রিকেটের পোস্টারবয় তিনি। এক যুগের দীর্ঘ ক্যারিয়ারে শুধু দেশেই নয়, বাইরেও অনেক ভক্ত পেয়েছেন তিনি। অর্জন করেছেন অসংখ্য ভক্ত-সমর্থকের ভালোবাসা। তারই যেনো প্রমাণ পাওয়া গেলো ভারতে। সাকিব আল হাসান না থাকায় হতাশা প্রকাশ করেন ভারতের এক সিকিউরিটি গার্ড।

আইপিএল খেলার সুবাদে বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় ভারতে সাকিব ভক্তের সংখ্যা তুলনামূলক বেশি। তেমনই একজন বিশাল রাজপুত। মূলত পড়াশুনা করলেও এর পাশাপাশি ছোটখাটো কাজ করেন তিনি। এবার সপ্তাহখানেকের জন্য পেয়েছেন ইন্দোর ক্রিকেট স্টেডিয়ামের সিকিউরিটি গার্ডের চাকরি। সেখানেই বাংলাদেশের এক সাংবাদিককে জানালেন সাকিবের প্রতি নিজের মুগ্ধতার কথা।

রাজপুত বলেন, ভারতে আইপিএল খেলতে আসেন সাকিব। এই ইন্দোর মাঠেও এসেছিলেন। আমি টিকিট কিনে খেলা দেখতে এসেছিলাম। কিছুদিন আগে শুনলাম তার (সাকিব) কী যেন ঝামেলা হয়েছে। তিনি কি আর খেলতে পারবেন না? অনেক দারুণ একজন ক্রিকেটার। আমার তাকে খুব ভালো লাগে। আমি বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের মধ্যে তাকেই বেশি চিনি। তিনি এলে খুব ভালো লাগতো। জানেন, আমি এখানে সিকিউরিটির চাকরি নিয়েছি পার্টটাইমার হিসেবে। শুধু খেলার দেখার জন্য।

বাংলাদেশের খেলা নিয়ে নিজের মন্তব্য তুলে ধরেন তিনি। বিশাল আশা করেন, টি-টোয়েন্টির পর টেস্টেও ভালো করবে বাংলাদেশ। তার ভাষায়, পড়ালেখার পাশাপাশি আমি ছোটখাটো কাজও করি। আমি বাংলাদেশ-ভারত টেস্ট উপলক্ষে ৭ দিনের জন্য সিকিউরিটি গার্ডের কাজ নিয়েছি। টাকার জন্য নয়, খেলা দেখবো বলে। আমার বাংলাদেশের খেলা খুব ভালো লাগে। দিল্লিতে ভারতকে হারিয়েছে। নাগপুরে তো আমাদের দল বেঁচে গেছে দীপক চাহারের কারণে। আশা করি টেস্টেও বাংলাদেশ ভালো খেলবে।

সাকিবের জন্য অনেক আফসোস করেন বিশাল রাজপুত। টাইগার অলরাউন্ডার নিষিদ্ধ হওয়ার কথা শুনে তিনি বলেন, আমি এখানে দাঁড়িয়ে কাজ করছি কারণ নেটে ক্রিকেটার আসে ব্যাট করতে। ভেবেছিলাম সাকিব হয়তো টেস্টে আসবে। এখন তোমার কাছে শুনলাম ও (সাকিব) এক বছর নিষিদ্ধ। ভীষণ খারাপ লাগছে। কিছুদিন আগে শুনেছিলাম কোনো ঝামেলা হচ্ছে সাকিবকে নিয়ে। এখন জানতে পারলাম কী হয়েছে। সে তো অনেক বড় ক্রিকেটার, আইসিসিকে কেন বললো না ফিক্সারের কথা?

সাকিব নিজেও হয়তো ভাবছেন সিকিউরিটি গার্ডের প্রশ্নটি। সময়মতো আইসিসিকে সব জানালে যে বিশালের মতো অন্যান্য ভক্তরাও আজ তাকে দেখতে পারতো অনেক কাছ থেকে, বা টিভির পর্দায়! 

ডেইলি বাংলাদেশ/এএল