Alexa সর্বগ্রাসী দাবানলে জ্বলছে অস্ট্রেলিয়া 

সর্বগ্রাসী দাবানলে জ্বলছে অস্ট্রেলিয়া 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:১৫ ১২ নভেম্বর ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

অস্ট্রেলিয়ার পূর্বাঞ্চলে চলমান দাবানল আরো তীব্র আকার ধারণ করেছে। বিধ্বংসী দাবানলে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে দেশটির নিউ সাউথ ওয়েলস অঙ্গরাজ্য। এরইমধ্যে এটি ইতিহাসের অন্যতম বিধ্বংসী দাবানলে রূপ নিয়েছে। কর্তৃপক্ষ বলছে, অঙ্গরাজ্যটি জুড়ে ৮৫টিরও বেশি দাবানল ছড়িয়ে পড়েছে, যার মধ্যে ৪৬টি নিয়ন্ত্রণের বাইরে।

দাবানলের তীব্র ঝুঁকিতে পড়েছে নিউ সাউথ ওয়েলসে’র রাজধানী সিডনি সহ পূর্ব উপকূলীয় বিস্তীর্ণ অঞ্চল। এই অঞ্চলে প্রায় ৬ মিলিয়ন মানুষ বাস করে। কর্তৃপক্ষ স্থানীয়দের সতর্ক করে বলেছে, অতিরিক্ত তাপমাত্রা ও বাতাসের তীব্রতার কারণে আগুন আরো দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে পারে। ফলে আরো মানুষের জীবন বিপন্ন হবে।

দাবানল ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় ঝুঁকিপূর্ণ সম্প্রদায়ের লোকদেরকে বাড়িঘর ছেড়ে দূরে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। অঙ্গরাজ্য জুড়ে প্রায় ৬০০ টিরও বেশি স্কুল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। 

নিউ সাউথ ওয়েলসের প্রধান গ্লেডিস বেরেজিকলিয়ান রাজ্যে সাত দিনের জরুরী অবস্থা ঘোষণা করেছেন। 

শুক্রবার নিউ সাউথ ওয়েলসে অগ্নিকান্ডের তীব্রতা বাড়ার পর থেকে তিনজনের মৃত্যু ও প্রায় দেড় শতাধিক বাড়িঘর ধ্বংস হয়েছে। 

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তারা এমন একটি সময়ের মুখোমুখি হচ্ছে যা দেশটির সবচেয়ে ‘ভয়ঙ্কর দাবানল সপ্তাহ’ হতে পারে। 

মঙ্গলবারের পূর্বাভাসকে বিশেষজ্ঞরা ২০০৯ সালে ভিক্টোরিয়ার ‘ব্ল্যাক স্যাটারডে দাবানলের সঙ্গে তুলনা করছেন যেখানে ১৭৩ জন মারা গিয়েছিল। সেই ঘটনার পর এই প্রথম সিডনিতে সর্বোচ্চ পর্যায়ের বিধ্বংসী দাবানলের সতর্কতা দেয়া হলো। 

এনএসডাব্লিউ এর রুরাল ফায়ার কন্ট্রোল সার্ভিসের কমিশনার শেন ফিতসিমন্স বলেন, ‘বিপর্যয়কর পরিস্থিতিতে জ্বলতে শুরু করা আগুন খুব দ্রুত বেড়ে যায় ও বড় আগুনে পরিণত হয়।’

দেশটির প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন বলেন, ‘কর্তৃপক্ষ যতটা সম্ভব ততটা প্রস্তুত ছিল।’ এছাড়াও আগুনে ক্ষতিগ্রস্তদের সব ধরণের সহায়তার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। 

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী