Alexa সমাপনী পরীক্ষার খাতা দেখবে অন্য উপজেলার শিক্ষকরা

সমাপনী পরীক্ষার খাতা দেখবে অন্য উপজেলার শিক্ষকরা

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:৪৩ ২৯ আগস্ট ২০১৯  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

পঞ্চম শ্রেণির সমাপনী ও ইবতেদায়ি পরীক্ষার খাতা মূল্যায়নে নতুন নিয়ম করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এক উপজেলার স্কুলগুলোর সমাপনীর খাতা দেখবে অন্য উপজেলার শিক্ষকরা।

সমাপনী পরীক্ষার খাতা মূল্যায়নে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে বেশ কিছু অভিযোগ জমা হয়েছিল। এরমধ্যে স্বজনপ্রীতি এবং নিজ উপজেলার শিক্ষার্থীদের খাতা মূল্যায়নের বেলায় ছাড় দেয়ার অভিযোগও ছিলো।

পরে বিষয়টি সমাধানে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মো. জাকির হোসেন এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন।

মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, সমাপনী ও ইবতেদায়ি পরীক্ষার খাতা মূল্যায়ন করার সিদ্ধান্তে কিছু পরিবর্তন আনা হয়েছে। আগে একই উপজেলার খাতা গুলো ভিন্ন-ভিন্ন স্কুলে মূল্যায়ন করা হতো। এখন থেকে এটি হবে না। খাতা মূল্যায়ন হবে উপজেলা ভেদে। ২০১৭ সালেও এই নিয়মেই খাতা দেখা হতো। 

যে উপজেলায় পরীক্ষার খাতা মূল্যায়ন করা হবে সে উপজেলায় নম্বরপত্র সিল-স্বাক্ষরসহ সংশ্লিষ্ট উপজেলায় পাঠানো হবে। এতে কোনো অনিয়ম বা উত্তরপত্র মূল্যায়নে বিলম্ব হলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ বিষয়ে মন্ত্রী জাকির হোসেন বলেন, উত্তরপত্র মূল্যায়নের ক্ষেত্রে যথাযথ মনিটরিং ব্যবস্থা থাকতে হবে। যে কোনো প্রকার অসততার জন্য বিভাগীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। প্রাথমিক শিক্ষাকে ঢেলে সাজাতে হলে খাতা মূল্যায়নে সৎ হওয়া জরুরি। এটিই আমাদের দেশের শিশুদের ভবিষ্যত নির্ধারণ করে দেবে।

মন্ত্রী জাকির হোসেন জানান, খাতা মূল্যায়নে কেউ অসত প্রমাণিত হলে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের (ডিপিই) ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে। এজন্য ডিপিই ও মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডকে দায়িত্বও দেয়া হয়।

আগামী ১৭ নভেম্বর থেকে পঞ্চম শ্রেণির সমাপনী ও ইবতেদায়ি পরীক্ষা শুরু হতে যাচ্ছে। পরীক্ষা সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে সভা করা হয়। সেখানে পরীক্ষার সময়সূচি তৈরি, প্রশ্নপত্র প্রণয়ন ও বিতরণ, নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা রক্ষা, উত্তরপত্র মূল্যায়ন, পরীক্ষার ফি নির্ধারণসহ বিভিন্ন বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএসআই/এসআই