Alexa শ্রীলংকা ভ্রমণে যে তিনটি খাবার খেতে ভুলবেন না

শ্রীলংকা ভ্রমণে যে তিনটি খাবার খেতে ভুলবেন না

ভ্রমণ ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৩:১১ ২০ জানুয়ারি ২০২০  

শ্রীলংকার জনপ্রিয় তিন খাবার

শ্রীলংকার জনপ্রিয় তিন খাবার

শ্রীলংকা ভ্রমণের জন্য উপযুক্ত দেশ। উপমহাদেশের দ্বীপ রাষ্ট্রটিতে যেতে বাংলাদেশের নাগরিকদের জন্য ভিসা বাধ্যতামূলক নয়। শ্রীলংকা গিয়েই ৩০ দিনের অন-অ্যারাইভাল ভিসা নেয়া যায়। ঢাকা থেকে কলম্বোর সরাসরি ফ্লাইট আছে। সমুদ্র বেষ্টিত এ দেশটিকে সামুদ্রিক খাবারে এশিয়ার সেরা হিসেবে ধরা হয়। যদি দেশটিতে যান, তবে নিচে উল্লিখিত তিনটি সামুদ্রিক খাবার চেখে দেখতে ভুলবেন না-

স্কুইড কারি

স্কুইড কারি

স্কুইড একপ্রকার সামুদ্রিক মাছ। শ্রীলংকায় যারাই ঘুরতে যান, তাদের বেশিরভাগই মাছটি চেখে দেখেন। শ্রীলংকায় গেলে চাইলে আপনিও স্কুইডের তরকারি খেয়ে আসতে পারেন। সামুদ্রিক এই প্রাণীটিকে অসাধারণ উপায়ে ও প্রণালীতে রান্না করতে পারে শ্রীলংকানরা। বিশ্বের অনেক দেশেও এ মাছ পাওয়া যায়। তবে সুস্বাদু মাছটি ঠিকঠাক মত রাঁধতে জানা মানুষের পরিমাণ খুবই কম।

জাফনা ক্র্যাব কারি

জাফনা ক্র্যাব কারি

শ্রীলংকার সবচেয়ে জনপ্রিয় সামুদ্রিক খাবারের মধ্যে জাফনা ক্র্যাব কারি অন্যতম। অনেকেই হয়তো জানেন নারিকেল ও সামুদ্রিক কাঁকড়ার জন্য দেশটি বিখ্যাত। এ দুই বিখ্যাত খাবারের সমন্বয়ে জাফনা ক্র্যাব কারি তৈরি করা হয়। এছাড়াও কয়েক ধরনের প্রয়োজনীয় মশলা তো রয়েছেই। পৃথিবীর সবচাইতে সুস্বাদু কাঁকড়া রান্না খাওয়ার সুযোগ না হারাতে চাইলে একবার অবশ্যই আপনার স্বাদ নেয়া উচিত এ রেসিপির।

ফিস আমউল থাইয়াল

ফিস আমউল থাইয়াল

শ্রীলংকার জনপ্রিয় এ খাবারটি তৈরি হয় সামুদ্রিক মাছ দিয়ে। মাছের টক তরকারি নামেই অধিক পরিচিত এটি। ফিস আমউল থাইয়ালে সবচেয়ে বেশি ব্যবহার হয় টুনা মাছ। মাছকে প্রথমে চেপে ভর্তা করে নিয়ে পরে মশলা মিশিয়ে নিতে হয় এ খাবার তৈরিতে। এরপর তাতে টক স্বাদের জন্য যোগ করা হয় কিছু ফলের রস। অসাধারণ আর নতুন এক টক স্বাদ আপনার মন জয় করবেই।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে