শেষদিনে ঘরমুখো মানুষের ভিড়

শেষদিনে ঘরমুখো মানুষের ভিড়

নিজস্ব প্রতিবেদক  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:৫৮ ২৪ মে ২০২০   আপডেট: ১৫:২৭ ২৪ মে ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও প্রিয়জনদের সঙ্গে ঈদ উদযাপনে রোজার শেষদিনে বাধা-বিপত্তি উপেক্ষা করে নানা পন্থায় বাড়ি ফিরছেন শত শত মানুষ।

রোববার সরেজমিনে রাজধানীর গাবতলী, আব্দুল্লাহপুর যাত্রাবাড়ী-সায়েদাবাদ এলাকা ঘুরে দেখা যায়, গণপরিবহন না থাকায় অনেকেই বিকল্প উপায় হিসেবে প্রাইভেটকার ও মাইক্রোবাস ভাড়া করে ঢাকা ছাড়ছেন। এছাড়াও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা, সিএনজি ও মোটরসাইকেল ভাড়া করেও বাড়ির পথে বের হয়েছেন ঘরমুখো মানুষ। 

গাবতলী, আমিনবাজার হেমায়েতপুর এলাকা থেকে ভেঙে-ভেঙে এসব পরিবহনে পাটুরিয়া ঘাটের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় তারা। যাত্রাবাড়ী-সায়েদাবাদ এলাকা থেকেও এসব পরিবহন কাঁচপুর ব্রিজ ও মাওয়া ঘাটের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাচ্ছে। অন্যদিকে, আব্দুল্লাহপুর থেকে গাজীপুর টাঙ্গাইল ও বঙ্গবন্ধু বহুমুখী সেতুর উদ্দেশ্যে কিছু যানবাহন ছেড়ে যেতে দেখা যায়।

রবিউল ইসলাম নামের এক যাত্রী ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, পরিবারের সবাইকে লকডাউনের আগেই গ্রামে পাঠিয়েছি। দীর্ঘদিন ঢাকাতে একা একা ছিলাম। আর পারছি না। তাই বাধ্য হয়েই ফিরছি।

ঝুঁকি নিয়ে কেনো যাচ্ছেন এমন প্রশ্নে বলেন, ঢাকাতে থাকাটাও এখন আমার জন্য ঝুঁকি হয়ে গেছে। আর ঢাকা থেকে এলাকাতে করোনায় আক্রান্তের হার কম তাই এলাকাতেই চলে যাচ্ছি।

এ দিকে রাজধানীর আশুলিয়া বেড়িবাঁধ এলাকায় দায়িত্বরত টিআই আতিকুর ইসলাম জানান, রাস্তায় তেমন কোনো গাড়ি চলছে না। হঠাৎ দু’একটা গাড়ি চলছে। তবে সেগুলো আমরা কঠোরভাবে দেখছি, যে যাত্রী আছে কি-না? যাত্রী থাকলে সেগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছি।

এ বিষয়ে আব্দুল্লাহপুরে দায়িত্বরত ঢাকা মহানগর ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট আসাদুল্লাহ বলেন, আজও রাজধানীর ছেড়ে যাওয়া মানুষের চাপ আছে। বিভিন্ন পণ্যের খালি গাড়ি যাচ্ছে। এসব গাড়িতে যাত্রী পরিবহন করা হচ্ছে কি না সে বিষয়টি কঠোরভাবে দেখা হচ্ছে। তবে সার্বিক পরিস্থিতি ঠিক আছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএএম/আরএইচ