শিশুর গলায় নাড়ি দেখে চিকিৎসকের চোখ ছানাবড়া

শিশুর গলায় নাড়ি দেখে চিকিৎসকের চোখ ছানাবড়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:০২ ১০ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ২০:০৯ ১০ আগস্ট ২০২০

গলায় নাড়ির প্যাঁচ নিয়ে জন্মগ্রহণকারী শিশু।

গলায় নাড়ির প্যাঁচ নিয়ে জন্মগ্রহণকারী শিশু।

সদ্য জন্ম নেয়া শিশুর গলায় ছয়বার নাড়ির প্যাঁচ দেখে প্রসবে সহায়তাকারী চিকিৎসকের চোখ ছানাবড়া হয়েছে। অবশেষে জটিল বিষয়টি সফলভাবে সমাধান হয়েছে। এখন মা ও শিশু সুস্থ রয়েছে। 

সম্প্রতি চীনের পশ্চিমাঞ্চলের হুবেই প্রদেশের ইচাং শহরের কেন্দ্রীয় হাসপাতালে এ আশ্চর্য ঘটনা ঘটে।

সংবাদ মাধ্যমের খবর, প্রাকৃতিকভাবে জন্ম নেয়া ওই শিশুর গলায় সাপের মতো নাড়ির প্যাঁচ সবাইকে অবাক করেছে। তবে চিকিৎসা জানিয়েছেন, গলায় নাড়ির প্যাঁচ লাগার ঘটনা স্বাভাবিক কিন্তু গলায় ছয়বার নাড়ি প্যাঁচ লাগার বিষয়টি শুনেননি তারা। এক চিকিৎসক জানান, ২৩ বছরের মধ্যে সদ্যজাত শিশুর গলায় এতো প্যাঁচ লাগার ঘটনা তিনি দেখেননি।

জন্মের পর শিশুর গলায় নাড়ির ছয়বার প্যাঁচ দেখা যায়।

জানা গেছে, মেডিকেলে নাড়ি কাটার পর সদ্যজাত শিশু ও তার মায়ের কোনো সমস্যা দেখা যায়নি বলে জানান চিকিৎসকেরা। মা ও শিশুর সুস্থতা নিশ্চিত হওয়ার পর এ খবর জানানো হয়।

চিকিৎসক লি হাউর বলেন, ২৩ বছরের ক্যারিয়ারে প্রথমবার সদ্যজাত শিশুর গলায় নাড়ি প্যাঁচের ঘটনা দেখেছি। গলার গহনার মতোই নাড়ি ছয়বার জড়িয়ে ছিল।

তিনি আরো বলেন, গলা থেকে নাড়ি সরানোর পর শিশুর কোনো সমস্যা হয়নি। শিশুদের গলায় নাড়ির প্যাঁচ থাকতে পারে। নাড়ি বেশি লম্বা হলেই এটি হতে পারে। তবে এতে সমস্যা সৃষ্টি হয় না।

কারণ শনাক্ত করে এ চিকিৎসক বলেন, মায়ের গর্ভে থাকার সময় শিশুর গলায় নাড়ির প্যাঁচ পড়ে যায়। তবে ছয়বার গলায় প্যাঁচ লাগার কথা স্বপ্নেও ভাবতে পারিনি।

গলা থেকে নাড়ির প্যাঁচ সরানোর পর মা ও শিশু সুস্থ রয়েছে।

একটি বিস্তারিত প্রসব পূর্বের সাক্ষী হতে প্রস্তুতি নিয়েছিলেন চিকিৎসকেরা। গর্ভধারণের পর থেকেই ওই প্রসূতিকে পর্যবেক্ষণে করা হচ্ছিল।  

প্রসবকারী মা বলেন, বাচ্চা সম্পূর্ণ সুস্থ থাকায় আমি অনেক খুশি।

সূত্র- মিরর ইউকে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ