শিরোপার আরো কাছে রিয়াল

শিরোপার আরো কাছে রিয়াল

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১২:৩৩ ৩ জুলাই ২০২০   আপডেট: ১২:৩৫ ৩ জুলাই ২০২০

গোল করার পর রামোস

গোল করার পর রামোস

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনার সঙ্গে লিগ শিরোপার লড়াইটা মাঝে বেশ জমে উঠলেও বৃহস্পতিবারের জয়ে বেশ এগিয়ে গেছে স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ। অবশ্য গেতাফের বিপক্ষে ম্যাচটিতে বেশ কষ্ট করেই লস ব্লাঙ্কোসদের জিততে হয়েছে। ইউরোপের মঞ্চে জায়গা করে নেয়ার লড়াইয়ে থাকা গেতাফেকে ১-০ গোলে হারিয়েছে জিনেদিন জিদানের দল। 

ঘরের মাঠ আলফ্রেড ডি স্টেফানো স্টেডিয়ামে গেতাফের মুখোমুখি হয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। ম্যাচের শুরুর দিকে বল দখলে রিয়াল এগিয়ে থাকলেও আক্রমণে ছিল গেতাফের আধিপত্য। অষ্টম মিনিটে গোলও পেতে পারতো তারা। ম্যাথিউস অলিভেরার হেডে বল চাভিয়েরের হাঁটুতে লেগে পোস্ট ঘেঁষে জালে জড়াতে যাচ্ছিল। তবে দারুণ ক্ষিপ্রতায় ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে সে যাত্রায় রিয়ালকে বাঁচিয়ে দেন থিবো কোর্তোয়া।

প্রথম ২২ মিনিটে রিয়ালকে ব্যাপক চাপে ফেলে গেতাফে। এসময় চারটি কর্নার পায় তারা, যদিও একবারও কাঙ্ক্ষিত সাফল্য পায়নি অতিথিরা। কুলিং ব্রেক-এর পরপরই ভালো একটি সুযোগ নষ্ট হয় রিয়ালের। রামোসের ক্রসে ইসকোর ভলি রুখে দেন গেতাফের গোলরক্ষক সোরিয়া। গোলশূন্য ড্রয়ে শেষ হয় প্রথমার্ধ।

ম্যাচের ৫৮তম মিনিটে গোল করার সুযোগ পেয়েছিলেন মদ্রিচ। তবে তার শট এক ডিফেন্ডারের গায়ে লেগে প্রতিহত হয়। আট মিনিট পর পেনাল্টি স্পটের কাছে বল পান বেনজেমা। তবে দুর্বল শট নিয়ে হতাশা বাড়ান তিনি।

রিয়ালের গোলের অপেক্ষা শেষ হয় ৭৯তম মিনিটে। ডান দিক দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে পড়া দানি কারভাহাল ফাউলের শিকার হলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। এসময় ঠাণ্ডা মাথায় নিখুঁত স্পট কিকে গোলটি করেন রামোস। চলতি লা লিগায় রিয়াল অধিনায়কের এটি নবম গোল যা দলের পক্ষে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। এছাড়া শেষ ১১ ম্যাচে এটি তার ষষ্ঠ গোল।

বাকি সময়ে কোনো পক্ষই তেমন কোনো সুযোগ তৈরি করতে পারেনি। ফলে ১-০ ব্যবধানের জয়ে দুই মৌসুম পর শিরোপা পুনরুদ্ধারের লক্ষ্যে বেশ এগিয়ে গেল মাদ্রিদের দলটি।

অনাকাঙ্ক্ষিত বিরতির পর পুনরায় শুরু হওয়া লিগে ছয় ম্যাচের সবকটিতে জিতেছে রিয়াল। ২০১৬-১৭ মৌসুমের পর এই প্রথম টানা ছয় ম্যাচ জিতল লস ব্লাঙ্কোসরা।

৩৩ ম্যাচে ২২ জয় ও আট ড্রয়ে রিয়ালের বর্তমান পয়েন্ট ৭৪। শিরোপা ধরে রাখার মিশনে বেশ খানিকটা পিছিয়ে পড়া বার্সেলোনার পয়েন্ট ৭০। অন্যদিকে সমান ম্যাচে ৫২ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে গেতাফে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএল