Alexa শিক্ষকদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা, প্রত্যাহার না করলে আন্দোলন!

শিক্ষকদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা, প্রত্যাহার না করলে আন্দোলন!

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:১৩ ২৬ জানুয়ারি ২০২০  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

শিক্ষকদের সম্মান নষ্ট করতেই শরণখোলার ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ রায়েন্দা সরকারি পাইলট হাই স্কুলের দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। ষড়যন্ত্রমূলক এ মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে শনিবার রাত ৮টার  দিকে উপজেলা শিক্ষক সমিতির নেতারা শরণখোলা প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করেছেন। 

২৩ জানুয়ারি (বৃহস্পতিবার) ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. সুলতান আহম্মেদ গাজী ও সহকারী শিক্ষক শাহিনুজ্জামান শাহিনের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ তুলে ওই স্কুলের দশম শ্রেণির এক ছাত্রীর মা বাদী হয়ে শরণখোলা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। 

সংবাদ সম্মেলনে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির (ভারপ্রাপ্ত) সভাপতি ও সুন্দরবন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আসাদুজ্জামান বলেন, একটি কুচক্রী মহলের প্ররোচনায় শিক্ষকদের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির এ মামলাটি করা হয়েছে। এতে শিক্ষক সমাজ, ছাত্র-ছাত্রী ও অভিভাবকদের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি ঘটার আশঙ্কা করা হচ্ছে। এছাড়া শিক্ষা ব্যবস্থায় এর বিরূপ প্রভাব পড়তে পারে।

সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষক নেতারা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে বলেন, ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। মামলা প্রত্যাহার করা না হলে কঠোর আন্দোলনে নামবেন বলে ঘোষণা দেন তারা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, তাফালবাড়ি স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ, মানিক চাঁদ রায়, রায়েন্দা সরকারি পাইলট হাই স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক অমলেন্দু হালদার, রাজাপুর মাধ্যমকি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. নান্না মিয়া, রায়েন্দা আর.কে.ডি.এস পাইলট বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. সেলিম হাওলাদার, জনতা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. শহিদুল ইসলাম, খোন্তাকাটা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মৃনাল কান্তি হালদার, আনোয়ার হোসেন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আফজাল হোসেন মানিক, খোন্তাকাটা বাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম মীর, আমেনা স্মৃতি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক উৎপল মজুমদার, সাউথখালী বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দিপক দাস প্রমুখ।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম