লেবাননের বৈরুতে যে কারণে ঘটল বিস্ফোরণ

লেবাননের বৈরুতে যে কারণে ঘটল বিস্ফোরণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০৯:১৪ ৫ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ০৯:২০ ৫ আগস্ট ২০২০

লেবাবননের বৈরুতে বিস্ফোরণের পরের ছবি। ছবি: সংগৃহীত

লেবাবননের বৈরুতে বিস্ফোরণের পরের ছবি। ছবি: সংগৃহীত

লেবাননের বৈরুতে ভয়াবহ দুটি বিস্ফোরণের ঘটনায় অন্তত ৭৮ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছে প্রায় ৪ হাজার মানুষ। আহত অনেকেরই অবস্থা আশঙ্কাজনক। এখনো বহু মানুষ নিখোঁজ রয়েছে।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার বিকেলে সমুদ্র বন্দরের কাছে বোমা তৈরিতে ব্যবহৃত রাসায়নিকের গুদামে বিস্ফোরণ হয় বলে জানিয়েছেন দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর প্রধান।

লেবাননের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থার খবরে বলা হয়েছে, বন্দরে একটি আতশবাজির গুদামে বিস্ফোরণ থেকে ঘটনার সূত্রপাত হতে পারে। তবে প্রকৃত কারণ জানতে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে, যারা  সরকারকে পাঁচদিনের মধ্যে চূড়ান্ত প্রতিবেন জমা দেবে।

দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে সংরক্ষণ করে রাখা দাহ্য পদার্থের কারণে অগ্নিসংযোগ ঘটেছে, যেখান থেকেই এই বিস্ফোরণ হতে পারে।

এদিকে বিস্ফোরণের জন্য দায়ীদের চড়া মাশুল দিতে হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব। বিপর্যয় কাটাতে বন্ধু রাষ্ট্রগুলোর কাছে সহযোগিতা চেয়েছে লেবানন সরকার।

মঙ্গলবার স্থানীয় সময় বিকেলে ভয়াবহ বিস্ফোরণে কেঁপে উঠে লেবাননের রাজধানী বৈরুত। মুহূর্তেই আগুন ধরে যায়। আশপাশের বাড়িঘর উড়ে যায়। ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয় বেশ কয়েকটি গাড়ি। কিছু বুঝে ওঠার আগেই ছোটাছুটি শুরু করেন আতঙ্কিত মানুষ। বিস্ফোরণের পরপরই ঘন কালো ধোঁয়ার কুণ্ডুলি দেখা যায় বৈরুতের আকাশে। অন্তত দেড়শ’ মাইল দূর থেকে শোনা যায় শব্দ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, বিস্ফোরণে কিছুক্ষণের জন্য তাদের কান বন্ধ হয়ে যায়। এরপরই গাড়ির কাঁচ, বাড়িঘরের জানালা খসে পড়ে। ভেঙে পড়ে বারান্দা। অনেকেই ক্ষতিগ্রস্ত ভবনে আটকা পড়ে। এর আগে এমন বিস্ফোরণ কেউ দেখেনি বলে জানিয়েছেন বাসিন্দারা। 

দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী হামাদ হাসান জানান, বিস্ফোরণের পরপরই ছিন্নবিচ্ছিন্ন মরদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। বৈরুত হাসপাতালের করিডোরও ভরে গেছে আহত ও রক্তাক্ত মানুষে।

এদিকে ইসরাইলের সঙ্গে লেবাননের সীমান্ত নিয়ে উত্তেজনা চলছে। ঘটনার পরপরই ইসরাইলী পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বিস্ফোরণের সঙ্গে তাদের কোনো যোগসূত্র নেই।

লেবাননে এ বিস্ফোরণ এমন একটি সময়ে হলো যখন দেশটি ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। সাবেক প্রধানমন্ত্রী রফিক হারিরির হত্যাকাণ্ড নিয়ে জাতিসংঘ ট্রাইব্যুনালের রায়ের তিনদিন আগে সংঘটিত এই বিস্ফোরণের কারণ এখনো পুরোপুরি স্পষ্ট নয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর