Alexa লাভে লাল টমেটো চাষিরা

লাভে লাল টমেটো চাষিরা

দেলোয়ার হোসেন, জামালপুর ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৮:৫৮ ২১ জানুয়ারি ২০২০  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

জামালপুরে টমেটোর চাহিদার তুলনায় ফলন কম। এ কারণে দাম বেশি। অল্প ফলনে বেশি লাভ হওয়ায় চাষিদের মুখেও তৃপ্তির হাসি।

সদর উপজেলার পুরাতন ব্রহ্মপুত্র অববাহিকায় টমেটোর ফলনে বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। এছাড়া ভরা মৌসুমেও বাজারে টমেটোর আমদানি কম। তাই যাদের ফলন ভালো হয়েছে তারা অধিক লাভে টমেটো বিক্রি করছেন। এতে হাসি ফুটেছে ওই উপজেলার ছয় হাজার টোমেটো চাষির মুখে।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী, চলতি মৌসুমে এক হাজার তিনশ হেক্টর জমিতে উদয়ন, উন্নয়ন, দিগন্ত, রূপসী, বিউটি ফুল, লাভলি, ব্র্যাকের ১৭৩৬, সফল, কোহিনুর, মঙ্গল সুপার ও মঙ্গল রাজা প্রজাতির টমেটো চাষ করা হয়েছে। সারা দেশেই এসব উন্নত, সুস্বাদু ও কেমিক্যালমুক্ত টমেটো চাহিদার তুঙ্গে।

উপজেলার বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, প্রতিমণ টমেটো পাইকারি বিক্রি হচ্ছে ১২শ’-১৫শ’ টাকায়। খুচরা বাজারে দাম আরো বেশি। অথচ গত বছর টমেটোর দাম ছিল প্রতিমণ ২শ’-আড়াইশ’ টাকা।

নরুন্দি বাজারের ব্যবসায়ী খলিলুর রহমান জানান, চাহিদার তুলনায় আমদানি কম থাকায় অন্যান্য বছরের মতো পাইকাররা শত শত ট্রাক ভর্তি করে টমেটো নিতে পারছেন না।

রাজধানীর পাইকারী ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম বলেন, গত বছর এ সময় টমেটোর দাম কম ছিলো। কিন্তু এবার টমেটোর দাম তিনগুণ।

জামালপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, ব্রহ্মপুত্র নদের লক্ষীর চর, তুলসীর চর, রানাগাছা, শরীফপুর, নরুন্দি, ইটাইলে উৎপাদিত টমেটো সম্পূর্ণ বিষমুক্ত, খেতেও সুস্বাদু। তবে ফলন কম হওয়ায় দাম বেশি। এ কারণে প্রতি হেক্টর জমিতে চাষিদের লাভ হচ্ছে এক লাখ ২০ হাজার থেকে এক লাখ ৪০ হাজার টাকা পর্যন্ত।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর