রিভিউ সিস্টেমে পরিবর্তন প্রয়োজন: শচীন

রিভিউ সিস্টেমে পরিবর্তন প্রয়োজন: শচীন

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৩:০৭ ১২ জুলাই ২০২০  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

ক্রিকেটে আম্পায়ারদের ভুল সিদ্ধান্তের পরিমাণ কমাতেই উদ্ভাবিত হয় ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম তথা ডিআরএস। বিভিন্ন কারণে ব্যাপক প্রশংসিত হলেও কিছু কিছু জায়গায় বেশ সমালোচনার স্বীকার হয়েছে এই পদ্ধতি। সেসব উল্লেখ করে রিভিউ সিস্টেমে কিছু পরিবর্তন চান সাবেক ভারতীয় ব্যাটসম্যান শচীন টেন্ডুলকার। 

সাধারণত প্রতিটি দল একদিনের ক্রিকেটে ইনিংসপ্রতি একটি ও টেস্ট ইনিংস প্রতি দুটি করে রিভিউ ব্যবহার করতে পারে। তবে করোনার এই সময়ে প্রতিটি ইনিংসে একটি করে রিভিউ নেয়ার সুযোগ বাড়ানো হয়েছে। এটাকে সাধুবাদ জানালেও রিভিউ সিস্টেমে ‘আম্পায়ার্স কল’ বিভাগের বিরোধিতা করেছেন শচীন।

বর্তমানে লেগ বিফোর উইকেটের (এলবিডব্লিউ) রিভিউ নিলে বল স্ট্যাম্পের ৫০ শতাংশের বেশি অংশে আঘাত না করলে আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত বদলায় না। তখন ‘আম্পায়ার্স কল’ হিসেবে মাঠের সিদ্ধান্তই বহাল থাকে।

সম্প্রতি উইন্ডিজ কিংবদন্তি ব্রায়ান লারার সঙ্গে এক আলোচনায় এলবিডব্লিউয়ের এ নিয়মটি বদলানোর পক্ষে মত দিয়েছেন শচীন। তিনি বলেন, ‘আইসিসির একটি নিয়মের সঙ্গে আমি একমত নই। সেটি হচ্ছে ডিআরএসে আম্পায়ার্স কলের যে নিয়মটা ব্যবহার করা হয়। এখন লেগ বিফোরের সিদ্ধান্তের বেলায় মাঠের আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত বদলাতে হলে বলের অন্তত ৫০ শতাংশ স্ট্যাম্পে লাগতে হয়। আমার মতে এটা সঠিক নয়।’

তিনি আরো বলেন, ‘যেকোন বোলার বা ব্যাটসম্যান যিনি রিভিউ নেন, তিনি তো মাঠের সিদ্ধান্ত মনঃপুত হয়নি বলেই এটা করেন। ফলে সিদ্ধান্ত যখন থার্ড আম্পায়ারের হাতে চলে যায়, তখন প্রযুক্তিকেই বাকিটা ঠিক করতে দিন। ঠিক টেনিসে যেমনটা- হয় ভেতরে নয়তো বাইরে, মাঝামাঝি বলতে কিছু নেই।’

পরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সেই আলোচনার ভিডিও পোস্ট করে শচীন লেখেন, ‘স্ট্যাম্পে বলের কত শতাংশ আঘাত করেছে সেটা বিষয় না। যদি ডিআরএসে দেখা যায় যে বল স্ট্যাম্পে আঘাত হেনেছে তাহলে আম্পায়ার্স কল যেটাই হোক না কেন আউট দেয়া উচিৎ। ক্রিকেটে প্রযুক্তি ব্যবহারের উদ্দেশ্য তো এটাই।’

ডেইলি বাংলাদেশ/এএল