Alexa রাজধানীতে গৃহবধূ ও বৃদ্ধের মৃত্যু

রাজধানীতে গৃহবধূ ও বৃদ্ধের মৃত্যু

প্রকাশিত: ২১:০০ ২৮ জুলাই ২০১৮   আপডেট: ২১:০০ ২৮ জুলাই ২০১৮

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ফাঁস নিয়ে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন ও অপর অজ্ঞাত (৬৫) জনের বাসের ধাক্কায় মৃত্যু হয়েছে।

এরা হলেন- রাজধানীর খিলগাঁও এলাকায় ফাতেমাতুজ্জোহরা ওরফে মুক্তা (২৩) আত্মহত্যা করেছেন। তিনি খিলগাঁও মডেল কলেজের বিবিএ তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন।

শনিবার ভোর ৪টায় ফ্যানের সঙ্গে শাড়ি পেচিয়ে ফাঁস নিয়েছে বলে জানান নিহতের স্বামি রাতুল ইসলাম মুন্না। পরে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

খিলগাঁও থানার এসআই মানিক শাহা পরিবাররে বরাত দিয়ে জানান, রাতে খাবার খেয়ে প্রতিদিনের মতো স্বামি সন্তানসহ ঘুমিয়ে পরেন তারা। ভোর ৪টায় স্বামী জেগে দেখেন ফ্যানের সঙ্গে শাড়ি দিয়ে ঝুলন্ত স্ত্রীকে। পরে তাকে ঢামেকে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের বাবা মান্নান জানান, আমার মেয়েকে তার স্বামীসহ আমার ভাড়া বাসায় রেখেছি যাতে তার কোনো সমস্যা না হয়। মেয়ের কলেজে আজ ফর্মফিলাপ ছিল। তার জন্য আমি ৫ হাজার টাকাও রেখেছি। তবে টাকা নিয়ে তাদের মধ্যে কোনো কলোহ থাকতে পারে। তিনি বিষ্ময় প্রকাশ করে বলেন, রুমের ভেতর এরকম একটা ঘটনা ঘটলো আর তার স্বামি কিছুই টের পেল না! 

নিহতের গ্রামের বাড়ি নিলফামারি ডিমলা গয়াবাটি গ্রামে। দুই ভাই এক বোনের মধ্যে তিনি দ্বিতীয়। তারা ৭২১/১/এ খিলগাঁও ব্লক সি ৬ষ্ট তলা ভবনের ভাড়া বাসায় থাকতেন। তাদের একমাত্র কন্যা সন্তান জান্নাতের বয়স দেড় বছর।

এদিকে রাজধানীর উত্তরায় সড়ক দুর্ঘটনায় অজ্ঞাত (৬৫) এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। মৃত ব্যক্তির পড়নে ছিল গোলাপী রঙের হাফ হাতা শার্ট ও চেক লুঙ্গী। শনিবার সকাল সাড়ে ৭টায় ঘটনাটি ঘটে।

উত্তরা পশ্চিম থানার এসআই আবু তাহের দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসবি/এসআই