Alexa যৌতুকের বলি হলেন স্ত্রী, পালালেন স্বামী

যৌতুকের বলি হলেন স্ত্রী, পালালেন স্বামী

নোয়াখালী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০১:১৯ ১৭ অক্টোবর ২০১৯  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে যৌতুকের জন্য নির্যাতনের পর এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার পর হাসপাতালে স্ত্রীর মরদেহ রেখেই স্বামী মো. জামাল উদ্দিন পালিয়ে গেছেন।

নিহত মারিয়া আক্তার উপজেলার চর রশিদ গ্রামের আবুল কালামের মেয়ে। বুধবার সকালে মরদেহের সুরতহাল সম্পন্ন করে পুলিশ। পরে বিকেলে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

নিহতের স্বজনরা জানান, সাড়ে চার বছর আগে মারিয়া আক্তারের সঙ্গে সুবর্ণচরের চরহাসান গ্রামের সফু তালুকদারের ছেলে জামাল উদ্দিনের বিয়ে হয়। এরপর থেকেই যৌতুক ও পারিবারিক নানা বিরোধের জেরে মারিয়াকে নির্যাতন করতেন শ্বশুরবাড়ির লোকজন। এরই ধারাবাহিকতায় মারিয়ার স্বামী জামাল উদ্দিন, শাশুড়ি, ননদ ও দেবর মিলে মঙ্গলবার রাতে মারধরের পর তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করেন। কিন্তু মারিয়া বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে তারা জানান। পরে তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ সময় হাসপাতালে মরদেহ রেখেই স্বামী ও স্বজনরা পালিয়ে যান।

স্বজনরা আরো জানান, স্বামী ও শ্বশুরের পরিবারের নির্যাতনের কারণে এর আগেও মারিয়া থানায় দুটি জিডি করেছেন।

চরজব্বর থানার ওসি (তদন্ত) মো. ইব্রাহিম খলিল জানান, যেহেতু হাসপাতালে মারা গেছে মামলাও সেখানে হবে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন হাতে পেলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সুধারাম থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুল বাতেন জানান, মরদেহের সুরতহালের পর পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর