Alexa যে গ্রামে সবাই মেনে চলে এই অদ্ভুত নিয়ম!

যে গ্রামে সবাই মেনে চলে এই অদ্ভুত নিয়ম!

ফিচার ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:২১ ৯ জুন ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

এখনো ধারণা করা হয় সমাজে নারী পুরুষের ভেদাভেদ যেন চিরদিনের। তবে এই ধারণাটি মিথ্যা প্রমাণ করতেই নেয়া হয় এই অভিনব ব্যবস্থা। যেখানে পুরুষের চাইতে নারীকেই বেশি প্রাধান্য দেয়া হয়। মূলত নারী জাতিকে সম্মান দেয়াই এর মূল উদ্দেশ্যে। এই দৃষ্টান্তটি দেখা যায় ভারতের পাঞ্জাবে।

ভারতের পাঞ্জাবের হিম্মতপুরা গ্রামে মেয়েদের নামে লেখা হচ্ছে বাড়ির নেমপ্লেট। এমনকি রাস্তার নামকরণও হচ্ছে এলাকার বিশিষ্ট নারীদের নামে। নারীশক্তির প্রতি সম্মান জানাতেই পাঞ্জাবের ভাতিন্ডা জেলার হিম্মতপুরা গ্রামে এই নিয়ম চালু হয়েছে। সম্পূর্ণ পাঞ্জাব রাজ্যে যেখানে বাড়ির নেমপ্লেটে পুরুষের নাম সোভা পাচ্ছে সেখানে হিম্মতপুরা গ্রামের ৩৫০টি পরিবার বদলে দিয়েছে সেই নিয়ম। তারা বাড়ির নেমপ্লেটে নারী সদস্যদের নাম লেখার পাশাপাশি তাদের ফোন নম্বর এবং একটি স্লোগানও লিখে রাখছে। যা অনুপ্রাণিত করছে তাদের প্রতিবেশীদেরও।

২০১৫ সালের জুলাই মাসে ভারতের মধ্যে প্রথম এই কাজটি করেছিলেন পার্শ্ববর্তী রাজ্য হরিয়ানার বিবিপুর গ্রামের বাসিন্দারা। যা দেখে পাঞ্জাবে প্রথম এই নিয়ম চালু করেন হিম্মতপুরার বাসিন্দারা। বাড়ির গেটে থাকা নেমপ্লেটে নাম লেখা চালু হওয়ার কারণে গ্রামের নারীদের আত্মবিশ্বাস বহুগুণে বৃদ্ধি পায়। এর পাশাপাশি গ্রামে বাল্য বিবাহ বন্ধ এবং তাদের পড়াশোনা ও খেলাধুলার জন্য অনুপ্রেরণা দেয়া হয়। এই ব্যবস্থার মূল লক্ষ্য হলো মেয়েদের সাবলম্বী করে তোলা।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএ