Alexa যেমন পোশাক চলছে এই ঈদে, না জানলে ঠকবেন

যেমন পোশাক চলছে এই ঈদে, না জানলে ঠকবেন

লাইফস্টাইল প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৩:২৩ ১৪ মে ২০১৯  

পোশাক : তাগা

পোশাক : তাগা

ঈদে খুশির সবচেয়ে বড় অনুষঙ্গ নতুন পোশাক। সবাই এমন একটি পোশাক চায়, যা নিমিষেই নজর কাড়বে সবার। সে সঙ্গে চলতি ফ্যাশনটিও থাকতে হবে পোশাকের রঙ ও ডিজাইনে। তাই প্রতি বছরই পোশাকে থাকে ভিন্ন ট্রেন্ড। এ বছর তারুণ্যের ফ্যাশন ট্রেন্ডে থাকছে বৈচিত্র্যের সমারোহ। তবে আপনি যদি ফ্যাশন সচেতন না হয়ে থাকেন, তাহলে পুরোনো পোশাক কিনে বাড়ি ফিরতে হবে। তাই জেনে নিন কী চলছে এই ঈদে-

পোশাক : সেইলর

মেয়েদের জন্য

মেয়েদের পছন্দের তালিকায় রয়েছে বিভিন্ন ধরণের ট্রেন্ডি পোশাক। তাই ফ্যাশন হাউজগুলো তাদের কালেকশনে রেখেছে বিভিন্ন ধরনের টপস। শপিং মল ঘুরে দেখা গেল, এগুলো টিনএজ থেকে শুরু করে ইউনিভার্সিটির মেয়েদের পছন্দের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে। টপসগুলোর প্যাটার্ন ডিজাইনের ক্ষেত্রে ওয়েস্টার্ন স্টাইল ফলো করা হয়েছে। এগুলোর অর্নামেনটেশনের জন্য বিভিন্ন ধরনের বিডস, স্টোন ও ফেব্রিক্স ম্যানুপুলেশন ব্যবহার করা হয়েছে। প্রোডাক্টগুলোর মূল্য যেন শিক্ষার্থীদের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে থাকে, সেদিকে খেয়াল করা হয়েছে। ফেস্টিভ ও ফোক কালারের প্রধান্য দিয়ে প্রোডাক্টগুলো তৈরি করা হয়েছে। প্রত্যেকটি প্রোডাক্টের ডিজাইন নান্দনিক ও ক্লাসিক।

ছবি : লা রিভ

তরুণীদের জন্য ওয়েস্টার্ন স্টাইলের বেশকিছু কামিজও রয়েছে। তবে এগুলোর প্যাটার্নে রয়েছে বিভিন্ন বৈচিত্র্য, ব্যবহার করা হয়েছে কমফোর্টেবেল ফেব্রিক্স। প্রোডাক্টগুলোতে সফট ও ব্রাইট কালার ব্যবহার করা হয়েছে। কামিজগুলো বেশির ভাগই লং ও ট্রেন্ডি। কামিজে বিভিন্ন মিডিয়া ব্যবহার করা হয়েছে, যা কামিজগুলোকে দৃষ্টিনন্দন করেছে।

ছবি : তাগা

এবছরও কুর্তির রঙে আছে ভিন্নতা। সাদার পাশাপাশি গোলাপি, জলপাই সবুজ, আকাশি, হালকা হলুদ, ঘিয়ে, হালকা ম্যাজেন্টা, হালকা নীল, ফিরোজা, হালকা সবুজ, পেস্ট ধরনের উজ্জ্বল কিন্তু হালকা রংগুলো বেছে নিতে পারেন। সেই সঙ্গে পরুন রঙিন লেগিংস। এ সব কুর্তি তৈরিতে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে কটন কাপড়ই প্রাধান্য পাচ্ছে। এ ছাড়া সুতি কাপড়ের ওপর ব্লক প্রিন্ট, এমব্রয়ডারি, ফেব্রিক্স ও হালকা সুতার কাজ থাকছে।

পোশাক : তাগা

এছাড়া আরো রয়েছে বিভিন্ন ধরনের ট্রেন্ডি পালাজ্জো। এগুলোতে যে ফেব্রিক্স ব্যবহার হয়েছে তারমধ্যে অন্যতম- রিমি কটন, লিনেন, শ্যামরে, ক্রেপ জর্জেট, ফাফা জর্জেট। লেডিস শার্টগুলোতে রয়েছে প্যাটার্নের ভেরিয়েশন এবং রয়েছে ডেকোরেটিভ বাটন। শার্টগুলোতে কমফোর্ট ফেব্রিক্স ব্যবহার করা হয়েছে।

পোশাক : লা রিভ

ছেলেদের জন্য

ঈদে ছেলেরা পাঞ্জাবি পরতেই হবে, এই ধারণা থেকে বেরিয়ে এসেছে অনেক তরুণরাই। শার্ট কিংবা টি-শার্টের দিকে ঝুঁকছে সমানতালে। আর তার সঙ্গে হাফ-প্যান্ট ও থ্রি কোয়ার্টার প্যান্ট মিলিয়ে পরা হচ্ছে। উৎসব বলে সবকিছুতেই উজ্জ্বল রঙের প্রতি ঝোঁক বেশি।

পোশাক : র নেশন

ছেলেদের জন্য আরো থাকছে ট্রেন্ডি ও ফিটেড পাঞ্জাবি, ক্যাজুয়্যাল শার্ট, ফরমাল শার্ট, টি-শার্ট, পোলো টি-শার্ট, ডেনিম ও টুইল প্যান্ট। ঈদকে মাথায় রেখে পাঞ্জাবি ও শার্টে ফেস্টিভ কালার ও প্রিন্ট ফেব্রিক্স ব্যবহার করা হয়েছে।

পোশাক : সেইলর

কাপড়ের পাশাপাশি মানানসই জুতা-মোজা, ঘড়ি, বেল্ট, মানিব্যাগ, রোদচশমা, টুপি, ব্রেসলেট, বডি স্প্রেও ছেলেদের গুরুত্বপূর্ণ উপকরণ। জিন্স বা ফরমাল যে কোনো প্যান্টের সঙ্গেই বেল্ট প্রয়োজনীয়। বেল্টের মধ্যে রয়েছে ‘ব্র্যান্ড লেদার’, ‘ফ্যাশনেবল’ কিংবা ‘ডিজাইনার বেল্ট’। ভালো মানের কয়েকটি ব্র্যান্ড হল গুচি, এপেক্স, সিকে, বস, প্লেবয় ও আরমানি। কাপড়ের বেল্টের চাহিদাও লক্ষ করা যাচ্ছে। পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে রোদচশমা ব্যবহারে ফ্যাশনে আসে স্টাইলিশ ভাব।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে