Alexa যুদ্ধবিরতি কার্যকরে রাশিয়া-ইউক্রেনের মধ্যে চুক্তি

যুদ্ধবিরতি কার্যকরে রাশিয়া-ইউক্রেনের মধ্যে চুক্তি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১১:৩০ ১০ ডিসেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১২:১১ ১০ ডিসেম্বর ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে যুদ্ধবিরতি বাস্তবায়নে সম্মতি দিয়েছে রাশিয়া- ইউক্রেন। সোমবার ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে এক শীর্ষ সম্মেলনে দুই দেশের মধ্যে এ চুক্তি সাক্ষরিত হয়।

এ সম্মেলনে রাশিয়ার ভ্লাদিমির পুতিন, ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভোলোডাইমার জেলেনস্কি, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রো এবং জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেল প্রায় নয় ঘন্টা ব্যয় করে এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে।

দ্বন্দ্ব নিরসনের প্রতিশ্রুতি নিয়ে প্রথমবারের মতো এ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন এই বছরের শুরুর দিকে নির্বাচিত এক রাজনীতিবিদ জেলেনস্কি। চুক্তি অনুযায়ী, চলতি বছরের মধ্যে বন্দি বিনিময়, ডনবাস অঞ্চলে বিদ্যমান যুদ্ধবিরতিসহ সব সংকট দূর করবে এই দুই দেশ। এ ছাড়া ২০২০ সালের র্মাচের মধ্যে ইউক্রেনের আরো তিনটি অঞ্চল থেকে সেনা প্রত্যাহারের প্রতিশ্রুতি দেয় দুটি পক্ষ। তবে দেশটির কোন দুটি অঞ্চল তা চুক্তিতে উল্লেখ করা হয়নি।

জেলেনস্কি বলেন, আমরা চার মাসের মধ্যে স্থানীয় নির্বাচন আয়োজনে যুদ্ধবিরতি পরিস্থিতি পর্যালোচনা করব।

তিনি আরো বলেন, এ বৈঠকে অনেক গুরুত্ব প্রশ্নের সমাধান করা হয়েছে। প্রথম বৈঠক হিসেবে আমি আশা করছি এ চুক্তি সবার জন্য ভালো ফলাফল আনবে।

২০১৪ সালে পূর্ব ইউক্রেনে মস্কোপন্থী বিচ্ছিন্নতাবাদী ও ইউক্রেনে সেনাবাহিনীর মধ্যে সংঘাত শুরু হওয়ার পর থেকে চলমান যুদ্ধে পাঁচ বছরে ১৩ হাজারেও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। এছাড়া কয়েক হাজার মানুষকে তাদের বাড়িঘর থেকে জোর করে বিতাড়িত করেছে। আর এ ঘটনায় বিচ্ছিন্নতাবাদীদের অস্ত্র সরবারহের জন্য রাশিয়াকে দায় করে ইউক্রেন।

এ কারণে অনেক ইউক্রেনিয়ান রাশিয়ার সঙ্গে সমঝোতা নিয়ে উদ্বিগ্ন। তারা প্রাক্তন সোভিয়েত প্রজাতন্ত্রের ওপর ক্রেমলিনের প্রভাব পুনরুদ্ধার করতে এবং ইউক্রেনের সঙ্গে ইউরোপীয় ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক নষ্ট হওয়ার জন্য পুতিনকে দেয় করছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ/টিআরএইচ