Alexa যুক্তরাষ্ট্রের উইঘুর বিল আন্তর্জাতিক আইনের গুরুতর লঙ্ঘন: চীন

যুক্তরাষ্ট্রের উইঘুর বিল আন্তর্জাতিক আইনের গুরুতর লঙ্ঘন: চীন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:৫০ ৯ ডিসেম্বর ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

জিনজিয়াং প্রদেশে উইঘুর মুসলিমদের বিরুদ্ধে নিপীড়নের ঘটনায় মার্কিন পার্লামেন্টে বিল পাস হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে চীন।

সোমবার ওই প্রদেশের গভর্নর শোহরাত জাকির যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে উইঘুর নিয়ে বিতর্কিত প্রচারণা চালানোর অভিযোগ করেন।

উইঘুর মুসলিমদের নিপীড়ন ও হংকং বিক্ষোভকারীদের ব্যাপারে সম্প্রতি মার্কিন পার্লামেন্টে বিল পাসের ঘটনায় এ দুই দেশের সম্পর্কে নতুন করে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। গত মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষে পাস হওয়া ওই বিলকে আন্তর্জাতিক আইনের গুরুতর লঙ্ঘন এবং চীনের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ না করার জন্য সতর্ক করে দিয়েছে বেইজিং।

জাতিসংঘ এবং আন্তর্জাতিক মানবাধিকার কর্মীরা বলেছে যে, চীন জিনজিয়াংয়ের গণবন্দি শিবিরে প্রায় দশ মিলিয়ন উইঘারকে আটক করেছে। এ বিষয়ে চীন বলেছে যে, কেন্দ্রগুলো সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলার জন্য মুসলিমদের কারিগরি প্রশিক্ষণ দিচ্ছে।

জিনজিয়াংয়ের গভর্নর শোহরত জাকির বেইজিংয়ে সাংবাদিকদের বলেন, জিনজিয়াংয়ের সন্ত্রাসবিরোধী ব্যবস্থা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সন্ত্রাসবিরোধী ব্যবস্থা থেকে আলাদা নয়। 

জিনজিয়াংয়ের সামাজিক স্থিতিশীলতার ব্যাপারেও যুক্তরাষ্ট্র চোখ বন্ধ করে রাখার নীতি বেছে নিয়েছে এবং এই অঞ্চলকে ঘিরে তীব্র প্রচারণা শুরু করেছে। এই ইস্যুকে ব্যবহার করে চীনের জাতিগত গোষ্ঠীগুলোর মধ্যে বিবাদের সূচনা করছে যুক্তরাষ্ট্র।

তিনি আরো বলেছিলেন যে জিনজিয়াংকে নিষ্ক্রিয় করার যে কোনো প্রচেষ্টা ব্যর্থ হতে পারে।

বিশ্বের বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থা ও প্রাক্তন বন্দিরা বলেছেন, শিবিরগুলোতে অবস্থা খুবই খারাপ। এছাড়া শিবিরের ভেতরে বন্দিদের শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করা হয়।

চীনের রাজধানীতে জাকিরের সংবাদ সম্মেলনে জিনজিয়াংয়ে ফাইটিং টেররিজম-এর একটি ইংরেজি ভাষার তথ্যচিত্রের অংশগ্রন্থে অতীতের সহিংসতার ছবি তুলে ধরেন। যা চীনের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন চ্যানেল সিজিটিএন-তে প্রচারিত হয়েছিল।

যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্টে ৪০৭-১ ভোটে পাস হওয়া উইঘুর বিলেতে মার্কিন প্রেসিডেন্টকে মুসলমানদের বিরুদ্ধে অবমাননার নিন্দা করা এবং জিনজিয়াংয়ের শিবির বন্ধ করার আহ্বান জানানো হয়েছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চীনের শক্তিশালী পলিটব্যুরোর সদস্য, সিনজিয়াং কমিউনিস্ট পার্টির সেক্রেটারি চেন কোয়াঙ্গুওর ওপর প্রথমবারের জন্য নিষেধাজ্ঞা আরোপের আহ্বান জানিয়েছে।

সূত্র: আল জাজিরা

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ