যাদবপুরে মিমি, ঘাটালে দেব ও বসিরহাটে নুসরাতের জয়লাভ

যাদবপুরে মিমি, ঘাটালে দেব ও বসিরহাটে নুসরাতের জয়লাভ

বিনোদন ডেস্ক- ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:৫৭ ২৩ মে ২০১৯   আপডেট: ২০:০৪ ২৩ মে ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

অবশেষে ভারতের লোকসভা ভোটে বড় ব্যবধানে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে নরেন্দ্র মোদির বিজেপি। তবে প্রতিবারের মতো এবারো এই নির্বাচনে গোটা ভারতবাসীর নজর ছিল পশ্চিমবঙ্গে। নির্বাচনে মমতা ব্যানার্জির তৃণমূল কংগ্রেস আবারো ক্ষমতা দখলে রাখতে যাচ্ছে- এমনটাই আভাস বুথ ফেরতের ফলাফলে। এই নির্বাচনে টালিউডের দুই জনপ্রিয় নায়িকা মিমি ও নুসরাত জাহান প্রথমবারের মতো অংশ নেন। আর অংশ নিয়েই করেছেন বাজিমাত। এছাড়াও জয়লাভ করেন চিত্রনায়ক দেব।

মিমি চক্রবর্তী পশ্চিমবঙ্গের যাদবপুর কেন্দ্র থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর মধ্যে ক্ষমতাসীন দল মোদির বিজেপির প্রার্থী হন অনুপম হাজরা। বরাবরের মতো এবারো যাদবপুরে ত্রিমুখী লড়াই হয়েছে। ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী,  অনুপম হাজারাকে ১ লাখের বেশি ভোটে পরাজিত করেছেন। ফলে কার্যত যাদবপুরে মিমিই বিজয়ী।

এবারের নির্বাচনে ঘাটাল আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন চিত্রনায়ক দীপক অধিকারী দেব। পশ্চিম বঙ্গের গণমাধ্যম বলছে, বিজেপি প্রার্থীকে ১ লাখ ৯ হাজার ৭৩টি বেশি ভোটে পরাজিত করে তৃণমূলের হয়ে বিজয় অর্জন করেছেন দেব। এর আগে ২০১৪ সালে ২ লাখ ৬০ হাজার ৮৯১ ভোটে ঘাটাল আসন থেকে জয়লাভ করেছিল তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী দেব। যদিও ২০০৯ পর্যন্ত এই আসন ছিল বামেদের দখলে।

এদিকে আরেক অভিনেত্রী নুসরাত জাহান প্রথমবারের মতো নির্বাচনে অংশ নিয়ে চমক দেখিয়েছেন। বসিরহাট কেন্দ্রের প্রার্থী হয়ে বিপুল ভোটে জয় লাভ করেছেন তিনি। এখন পর্যন্ত পাওয়া তথ্য মতে নুসরাত  ৩ লাখ ১১ হাজার ৮৩৫ ভোট বেশি পেয়ে জয় লাভ করেছেন। 

এছাড়াও আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রটি ছিল দুই তারকার লড়াই। বিজেপির তরফে ছিলেন গায়ক বাবুল সুপ্রিয় আর তৃণমূলের তরফে ছিলেন অভিনেত্রী মুনমুন সেন। এই আসনে শেষ হাসি হেসেছেন বিজেপি প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়। অপরদিকে বীরভূম থেকে জয়লাভ করেছেন তৃণমূল প্রার্থী অভিনেত্রী শতাব্দী রায়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনএ