Alexa মেলার মতোই মেলা

মেলার মতোই মেলা

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:৫২ ১ মার্চ ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

তিন দিনের বৃষ্টিতে এলোমেলো হয়ে গেছে অনেক কিছুই। বদলে গেছে অনেক ঘটনা। অগ্নিঝরা মার্চ মাসের প্রথম দিনটিতেও তাই দিতে হচ্ছে একুশে বইমেলার খবর।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে দুই দিন বাড়িয়ে দেয়া হয়েছে এবারের বইমেলা। বাড়ানো হয়েছে মেলার দ্বার খোলা রাখার সময়ও। এমনিতে বিকেল তিনটায় খোলা হলেও আজ মেলা শুরু হয়েছে সকাল এগারোটায়। সকাল থেকেই মেলা প্রাঙ্গণে দর্শনার্থীদের ভিড় দেখা গেছে চোখে পড়ার মতো।

শুক্রবার মেলার বিশেষ দিন বলে নিয়মিত আয়োজনের মধ্যে ছিল না শিশুপ্রহর। তবে বাবা মায়ের সঙ্গে অনেক শিশুরা মেলা দেখতে এসেছেন ঠিকই। বাংলা একাডেমীর মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী জানিয়েছেন, এ দুই দিন শুধুমাত্র প্রকাশকদের লোকসান কমানোর জন্য বাড়ানো হয়েছে। এজন্য শিশু প্রহর আয়োজনের দিকে যাওয়া হয়নি।

এদিকে মেলার সময় বাড়ানোর জন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করেছেন প্রকাশকরা। তারা বলেন, সিদ্ধান্তটি জরুরি ছিল। না হলে আমাদের লোকসান হতো। সরকারে থাকা চিন্তাশীল সুধীদের তাই বিশেষ ধন্যবাদও দিয়েছেন প্রকাশকরা।

মেলায় আজ বই বিক্রি হচ্ছে প্রচুর। গত তিনদিন যারা আসতে পারেননি আজ তারা সকাল থেকেই ঘুরছেন মেলার উঠোনে। সাবা নন্দিনী নামে একজন জানান, ২৭ ফেব্রুয়ারি কেনা কাটা করার জন্য সময় নির্ধারণ করেছিলাম, কিন্তু বৃষ্টির কারণে সেটি হয়নি। তবে আজকে ঘুরে ঘুরে হাজার টাকার বই কিনেছি।

তবে আজকে অনেক কবি সাহিত্যিক মেলায় এসেছেন আড্ডার ইচ্ছায়। ‘লেখক বলছি’ মঞ্চে সকাল থেকেই তাই চটকদার সাহিত্য আলোচনায় ডুবে থেকেছেন অনেকে। অনেকে আবার বসেছেন বাংলা একাডেমির পুকুরের সিঁড়িতে। সব মিলিয়ে বলা যায় বাড়তি এই দিনটি অবকাশ আবহেই কেটেছে বইমেলার। সেই সঙ্গে হয়েছে বই বাণিজ্যও।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএস/আরএইচ