Alexa মেয়াদোত্তীর্ণ ইনজেকশনে আপত্তি, নার্সকে পেটাল ফার্মেসির লোক

মেয়াদোত্তীর্ণ ইনজেকশনে আপত্তি, নার্সকে পেটাল ফার্মেসির লোক

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০২:২০ ২৫ জুন ২০১৯   আপডেট: ০৯:১৩ ২৫ জুন ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

রাজধানীর উত্তরার ‘উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মেয়াদোত্তীর্ণ ইনজেকশনে আপত্তি করায় সিনিয়র স্টাফ মেল নার্স মনিরুল ইসলামের ওপর ফার্মেসির লোকেরা হামলা চালিয়েছে।

উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

আহত ওই সিনিয়র স্টাফ নার্স ‘বাংলাদেশ নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন’র উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল শাখার স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান বলে জানা গেছে।

পরবর্তীতে জড়িতদের বিচারের দাবি ও হামলার প্রতিবাদে রাত ৮টা থেকে হাসপাতালের নার্সরা তাদের কার্যক্রম বন্ধ করে জরুরি বিভাগের পাশের রাস্তায় অবস্থান কর্মসূচি পালন করছে।

এদিকে হামলার পর নার্সদের কার্যক্রম বন্ধ করে অবস্থান কর্মসূচিতে একাত্মতা প্রকাশ করেছেন হাসপাতালের চিকিৎসকরা।

আধুনিক হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. মো. জাকির হোসেন ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, অতর্কিত হামলায় মনিরুলের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তিনি বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ বিষয়ে হাসপাতালটির সাধারণ সম্পাদক মো. ফয়সাল কবীর বলেন, ঘুমের ইনজেকশনে মেয়াদের তারিখ না থাকায় রোগীর স্বজনকে পরিবর্তন করে আনতে পাঠানো হয়। এর জেরে হঠাৎ করেই হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সিনিয়র স্টাফ নার্স মনিরুল ইসলামের ওপর হামলা চালায় ফার্মেসির লোকজন। হামলায় ‘কাকরাইল ফার্মেসি’র ১০ থেকে ১২ লোক ছিল।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, মনিরুলকে মারধরের সময় হামলাকারী বলতে থাকে, ‘তোরা কি জানিস না এটা যে কাকরাইল ফার্মেসির ইনজেকশন। জানার পরও কেন পরিবর্তনের জন্য পাঠালি?’

অবস্থানরত নার্সরা বলেন, নার্সের ওপর অন্যায়ভাবে হামলা চালানো হয়েছে। আমরা এর সুষ্ঠু বিচার চাই। 

নার্সদের অবস্থান কর্মসূচির কারণে বিপাকে পড়েছেন হাসপাতালের রোগীরা।

ডেইলি বাংলাদেশ/ইএ/আরএ