Alexa মুন্সিগঞ্জে বরের বাড়িতে শোকের মাতম

মুন্সিগঞ্জে বরের বাড়িতে শোকের মাতম

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:৫০ ২২ নভেম্বর ২০১৯   আপডেট: ২০:৫৫ ২২ নভেম্বর ২০১৯

ছবি : ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি : ডেইলি বাংলাদেশ

ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে শুক্রবার দুপুরে বরযাত্রীবাহী মাইক্রো ও বাসের সংঘর্ষে ১০ জন নিহত হওয়ার ঘটনায় মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলার কনকসার বটতলা গ্রামের বর রুবেলের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। 

বর রুবেল ইসলাম বেপারী ওই গ্রামের আব্দুর রশিদ বেপারীর ছেলে। তারা তিন ভাই-বোন। সড়ক দুর্ঘটনায় বরের বাবা ও বোন মারা যান। মাইক্রো চালক ছাড়া নিহতরা সবাই বরের আত্মীয় স্বজন। ওই বাড়িতে বিয়ের আনন্দের পরিবর্তে চলছে কান্নার রোল। 

রুবেলের সঙ্গে ঢাকার কামরাঙ্গীচরের মিশা আক্তারের বিয়ের কথা হয়ে আসছিল দুই মাস আগে। মা আয়েশা বেগমের ইচ্ছে ছিল রুবেলর বিয়ের পরই বিয়ে দেবেন মেয়ে লিজার। কিন্তু লিজা চির বিদায় নিয়েছে। তিন ছেলে-মেয়ের মধ্যে সবার ছোট মেয়ে লিজাকে বিয়ে দেয়া আর হলো না মায়ের। ছেলে রুবেলের কাবিনে যাওয়ার জন্য রওনা হওয়ার পথেই শেষ হয়ে গেল সব।

 

রুবেলের কাবিনে যাওয়ার জন্য পৃথক দু’টি মাইক্রোযোগে বরযাত্রীরা রওনা হন কনের বাড়ির উদ্দেশ্যে। বর রুবেলকে নিয়ে বন্ধুরা চড়েন একটি মাইক্রোতে। অন্য মাইক্রোতে চড়েন বরের বাবাসহ আত্মীয়-স্বজনরা। বরের মাইক্রো থেকে মাত্র ৫০-৬০ ফুট সামনের দিকে এগিয়ে যেতেই চোখের সামনে বিপরীত থেকে ছুটে আসা যাত্রীবোঝাই বাসের সঙ্গে মাইক্রোর সংঘর্ষ ঘটে। নিমিষেই বিয়ের সব আনন্দ ভেঙে স্বজন হারানোর বেদনার স্রোতে পরিণত হলো।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ