Alexa মিয়ানমার থেকে আরো এলো পাঁচ ট্রলার পেঁয়াজ 

মিয়ানমার থেকে আরো এলো পাঁচ ট্রলার পেঁয়াজ 

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০০:১৮ ১০ ডিসেম্বর ২০১৯   আপডেট: ০৯:০৩ ১০ ডিসেম্বর ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ ভর্তি ট্রলার কক্সবাজারের টেকনাফ স্থলবন্দরে আসা অব্যাহত রয়েছে। সোমবার চার ব্যবসায়ীর কাছে পাঁচটি ট্রলারে ৩৩৬ দশমিক ৩০৪ মেট্রিক টন পেঁয়াজ আসে। 

চলতি বছরের ডিসেম্বর মাসে আট দফায় মিয়ানমার থেকে নৌপথে সাত হাজার ৪১৭ দশমিক ৪৭৮ টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে।

এ তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ স্থলবন্দরের কাস্টমস সুপার আফসার উদ্দিন। তিনি বলেন, ব্যবসায়ী মো. হাশেমের ১৯৯ দশমিক ৬০০, যদু বাবুর ৯৯ দশমিক ৮০০, আরাফাতের ১৯ দশমিক ৮৮০, মোহাম্মদ রহিমের ১৭ দশমিক ২৪ মেট্রিক টন পেঁয়াজ স্থলবন্দরের আসে। এসব পেঁয়াজ খালাস করে বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করা হয়েছে। 

তিনি আরো বলেন, ব্যবসায়ীরা পেঁয়াজ আমদানির দিকে ঝুঁকছে। ফলে অন্যান্য পণ্য আমদানি কমে যাচ্ছে। তবে পেঁয়াজ আমদানিতে রাজস্ব মওকুফ করে দেয়ায় রাজস্ব আদায় কমেছে। তবে সংকট মোকাবিলায় পেঁয়াজ আমদানি বাড়াতে ব্যবসায়ীদের আরো বেশি উৎসাহিত করা হচ্ছে।

কাস্টমস সুপার বলেন, ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে ভারত পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দেয়। এরপর ৩০ শে সেপ্টেম্বর  মিয়ানমার থেকে প্রথম চালানে ৬৫০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ আসে। এরপর থেকে সোমবার বিকেল পর্যন্ত মিয়ানমার থেকে ৫২ হাজার ৪৭৯ দশমিক ৪৭৮ টন পেঁয়াজ আমদানি করা হয়েছে। 

এ প্রসঙ্গে স্থলবন্দর পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠানের ইউনাইটেড ল্যান্ড পোর্ট টেকনাফ লিমিটেডের মহাব্যবস্থাপক জসিম উদ্দিন বলেন, স্থলবন্দরের অন্যান্য পণ্যের ট্রলার থাকলেও আগে পেঁয়াজের ট্রলার খালাস করা হচ্ছে। সোমবার রাত সাতটা পর্যন্ত ২৬টি পেঁয়াজ ভর্তি ট্রাক দেশের বিভিন্ন বিভাগীয় শহরের উদ্দেশ্যে স্থলবন্দর ছেড়ে গেছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ/টিআরএইচ