66830 মিরসরাই হানাদার মুক্ত দিবস
Best Electronics

মিরসরাই হানাদার মুক্ত দিবস

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৬:০১ ৮ ডিসেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৬:০১ ৮ ডিসেম্বর ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

৮ ডিসেম্বর, মিরসরাই হানাদার মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে মুক্তিকামী জনতা পাক বাহিনী ও তাদের দোসরদের মিরসরাইয় থেকে হটিয়ে শত্রুমুক্ত করেছিলেন।

মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন মিরসরাই থানার মুক্তিযোদ্ধা ডেপুটি কমান্ডার ছিলেন জাফর উদ্দীন আহমদ চৌধুরী। তিনি ডেইলি বাংলাদেশকে জানান, ডিসেম্বরের প্রথম দিকেই মিরসরাইয়ের প্রায় এলাকা শত্রুমুক্ত হয়। কিন্তু পাকবাহিনীর কিছু সদস্য ও তাদের দোসর রাজাকার, আল-বদর তখনো থানা সদরে অবস্থান করছিল। তাদের আস্তানা ছিল মিরসরাই উচ্চবিদ্যালয় (বর্তমান মিরসরাই পাইলট উচ্চবিদ্যালয়) ও মিরসরাই থানায়। সে কারণে মিরসরাই এলাকাকে শত্রুমুক্ত ঘোষণা করা যাচ্ছিল না।

তিনি আরো বলেন, ৮ ডিসেম্বর মুক্তিযোদ্ধারা খবর পেলেন, পাকিস্তানি সেনারা মিরসরাইয়ের ওয়্যারলেস ভবনটি (বর্তমান টিঅ্যান্ডটি ভবন) ধ্বংস করে থানা সদরে অবস্থান নিয়েছে। মিরসরাইয়ের প্রত্যন্ত অঞ্চলে অবস্থান নেওয়া মুক্তিযোদ্ধারা সংগঠিত হয়ে হানাদারদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলেন। মুক্ত হয় মিরসরাই।

চারদিক থেকে জয় বাংলা স্লোগান নিয়ে মিরসরাই উচ্চবিদ্যালয় মাঠে সমবেত হয় হাজারো মানুষ। মৌলভী শেখ আহমদের পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের পর জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে ছাত্র-জনতা ও মুক্তিযোদ্ধারা বিদ্যালয়ের মাঠে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন। জয় বাংলা স্লোগানের মধ্য দিয়ে শত্রুমুক্ত হয় মিরসরাই।

এদিকে দিবসটি উপলক্ষে সকালে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড সমাবেশ, আলোচনা সভা ও র‍্যালির আয়োজন করেছে। এছাড়া উপজেলা প্রশাসনও বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করেছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসকে

Best Electronics