মিন্নিসহ ১০ আসামির বিরুদ্ধে সাক্ষ্য গ্রহণ

আলোচিত রিফাত হত্যা

মিন্নিসহ ১০ আসামির বিরুদ্ধে সাক্ষ্য গ্রহণ

বরগুনা প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:৩৪ ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৭:০৬ ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

বরগুনায় আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির বিরুদ্ধে সাক্ষ্য গ্রহণ শেষ হয়েছে। এ মামলায় ৭৬  জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করেন আদালত। 

এ সাক্ষ্য গ্রহণে মামলার বাদী এবং রাষ্ট্রপক্ষ সঠিক বিচার পাবেন বলে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। 

প্রধান সাক্ষী থেকে আসামি হওয়া আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির আইনজীবী বলেন, সাক্ষীতে স্পষ্ট হয়েছে এই হত্যাকাণ্ডে মিন্নি জড়িত নয়। 

১ জানুয়ারি রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় প্রাপ্তবয়স্ক আসামি রিফাত ফরাজী, রাব্বি আকন, মোহাইমিনুল সিফাত, টিকটক রিদয়, মো হাসান, মুসাবন্ড, নিহত রিফাত শরীফের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি, রাফিউল ইসলাম রাব্বি, কামরুল ইসলাম সায়মুন ও সাগরের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে আদালত। ৮ জানুয়ারি থেকে শুরু হয় সাক্ষ্য গ্রহণ। একটানা ৩২ কর্মদিবসে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোহাম্মাদ আসাদুজ্জামানের আদালতে সাক্ষ্য দেন ৭৬ জন সাক্ষী।

সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে মামলার বাদী ও রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী সন্তোষ প্রকাশ করে জানান, সাক্ষীতে সর্বোচ্চ শাস্তি হবে আসামিদের। ১০ মার্চ মামলার পরবর্তী তারিখ ধার্য্য করেছে আদালত। ওইদিন সাক্ষীদের দেয়া সাক্ষ্য শুনানো হবে আসামিদের।

মামলার বাদী দুলাল শরীফ বলেন, সাক্ষীতে স্পষ্ট হয়ে উঠেছে আমার সন্তানকে তারা পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে। সন্তান হত্যার বিচার সঠিকভাবে পাব বলে আশা করি।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মুজিবুল হক কিসলু বলেন, প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির বিপক্ষে ৭৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়েছে। সাক্ষ্য গ্রহণে রাষ্ট্রপক্ষ সন্তুষ্ট। আশা করি সঠিক বিচার পাবো। 

এদিকে সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে মিন্নির আইনজীবী মাহবুবুল বারী আসলাম বলেন, প্রায় ৩২ কার্যদিবসের মধ্যে ৭৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যতে তারা সন্তুষ্ট, ন্যায় বিচার পাবেন তিনি। মিন্নির জামিন শুনানির জন্য ১০ মার্চ পরবর্তী তারিখ ধার্য করেছেন বিচারক।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে/এআর