মালিতে বন্দুকধারীর হামলায় ৯ সেনাসহ নিহত ৪০

মালিতে বন্দুকধারীর হামলায় ৯ সেনাসহ নিহত ৪০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১১:৪৫ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৫:০৫ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

পশ্চিম আফ্রিকার দেশ মালির মোপ্তি অঞ্চলে বন্দুকধারীদের হামলায় ৯ সেনাসহ ৪০ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় এখনো বেশ কয়েকজন নিখোঁজ হয়েছেন বলে জানা গেছে।

বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েট প্রেসের (এপি) তথ্যানুযায়ী, শুক্রবার সকালের দেশটির ওগোসসাগো গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। হামলাকারীরা ওই গ্রামের বহু ঘর-বাড়ি পুড়িয়ে দেয়ার পাশাপাশি লুটপাটও করেছে। তবে কে বা কারা এ হামলা চালিয়েছে তার দায় এখনো কেউ স্বীকার করেনি।

মালির সরকার এ হামলার নিন্দা জানিয়ে বলেছে, এই অঞ্চলে বেশিরভাগ হামলা জাতিগত সহিংসতার কারণে হয়ে থাকে। অঞ্চলটি থেকে সেনা প্রত্যাহারের পর হামলার ঘটনা আরো বেশি ঘটছে। 

ওগোসাগুর পাশের শহর বাঙ্কাসাসের মেয়র মৌলায়ে গুইন্দো জানান, ওই গ্রামটির পাশে থাকা সরকারি ঘাঁটি থেকে সেনা সদস্যরা চলে যাওয়ার ২৪ ঘণ্টারও কম সময়ের মধ্যে শুক্রবারের হামলার ঘটনা ঘটেছে। তবে এই বিষয়ে মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়ে সেনা মুখপাত্র বলেছেন, হামলার পর সেখানে সেনা মোতায়েন করা হয়েছে।

গ্রাম প্রধান আলী ওসমানী বারি বলেছেন, প্রায় ৩০ জন বন্দুকধারী বেশ কয়েক ঘণ্টা ধরে এই হামলা চালিয়েছে। হামলার পর তারা ঘরে এবং শস্যে আগুন ধরিয়ে দেয়, গবাদিপশু পুড়িয়ে দেয় আবার লুট করেও নিয়ে যায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক সরকারি কর্মকর্তা এর আগে বলেছেন, এ ঘটনায় এখনো ২৮ জন নিখোঁজ রয়েছেন। তিনি দাবি করেন, হামলাকারীরা ডগোন নৃগোষ্ঠীর। তবে নিরপেক্ষ সূত্র থেকে কে এই হামলা চালিয়েছে তা যাচাই করা হয়নি।

মালিতে নিযুক্ত শান্তিরক্ষা মিশনের প্রধান মহাম্মদ সালেহ আনাদাদিফ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এমন সময় এ হামলা চালানো হয়েছে যখন আমরা দেশের উত্তর থেকে ইতিবাচক অগ্রগতি লাভ করছিলাম। যা ঘটছে তা অত্যন্ত ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। আমি এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। এ অঞ্চলে সহিংসতার প্রকোপ ভাঙা এখন জরুরি প্রয়োজন।

উল্লেখ্য, গত বছরের মার্চ মাসেও ওগোসসাগো গ্রামে সন্ত্রাসীদের হামলায় প্রায়  ১৬০ জন নিহত হয়েছিল। ওই হামলার জন্য ডগোন মিলিশিয়াদের দায়ী করা হয়। ২০১২ সালে মালির বহু এলাকা দখল করে নেয় আল-কায়েদাপন্থী জঙ্গিরা। এরপর থেকেই দেশটিতে সশস্ত্র হামলার ঘটনা বেড়ে গেছে। গত বছরই শুধু মধ্য মালিতে প্রায় ৪৫০ জন সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হয়েছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ/টিআরএইচ