মাদারীপুরে আট দিন ধরে নিখোঁজ কিশোরী 

মাদারীপুরে আট দিন ধরে নিখোঁজ কিশোরী 

রাজৈর  (মাদারীপুর) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:৫৫ ২৯ মার্চ ২০২০   আপডেট: ২০:৫৯ ২৯ মার্চ ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

মাদারীপুরে আট দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছেন রামিমা আক্তার নামে এক কিশোরী। রামিমা ফরিদপুরের সালথা উপজেলার ভাওয়াল ইউপির ইউসুফদিয়া গ্রামের মো. রিপন মোল্লার মেয়ে।

রামিমা চার বছর ধরে মাদারীপুর সদর উপজেলার বাহাদুরপুর এলাকায় একটি বাড়িতে কাজ করতো। গত ২১ মার্চ সন্ধ্যার পর থেকে তিনি নিখোঁজ হন।

এদিকে রামিমার পরিবারের দাবি, রামিমাকে কেউ অপহরণ করেছে। রামিমা যেখানে থাকতো সেই পরিবারের পক্ষ থেকে রামিমার সন্ধান চেয়ে গত ২২ মার্চ মাদারীপুর সদর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।  

নিখোঁজ কিশোরীর পরিবার ও পুলিশের সূত্র জানায়, গত ২১ মার্চ সন্ধ্যা ৭টার দিকে বাসার বাইরে যায় রামিমা। এরপর থেকে রামিমা আর বাড়ি ফিরে আসেনি। পরিবারের স্বজনরা রামিমার আত্মীয় স্বজন, বন্ধু ও শুভাকাঙ্খীদের বাড়িতে খোঁজ করেও রামিমার কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। রামিমার গায়ের রং শ্যামলা, উচ্চতা ৪ ফুট ৬ ইঞ্চি, মাথায় কালো চুল ও মুখমন্ডল গোলাকার। পরনে ছিল সবুজ রঙের ছাপা কামিজ ও খয়েরি রঙের সালোয়ার। 

নিখোঁজ তরুণীর বাবা মো. রিপন মোল্লা একজন কৃষক। 

রিপনের নিকটাত্মীয় মো. জোবায়ের হোসেইন বলেন, রিপনের চার মেয়ে, কোনো ছেলে সন্তান নেই। ধারণা করছি রামিমাকে কেউ অপহরণ করে নিয়ে গেছে। আজ ৮ দিন হয়ে গেল রামিমার কোনো খোঁজ পাচ্ছি না। পুলিশের কাছে জানিয়েছি। তার সন্ধান চাই।

মাদারীপুর সদর থানার ওসি (তদন্ত) মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, নিখোঁজ এক কিশোরীর সন্ধান চেয়ে থানায় জিডি হয়েছে। ওই কিশোরীর পরিবারের সঙ্গে কথা বলেছি। সব থানায় ওই তরুণীর ছবিসহ তথ্য পাঠানো হয়েছে। ওই কিশোরী সন্ধানে সব ধরণের চেষ্টাই করে যাচ্ছি। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে