Alexa মাতালের কাছে রেহাই পেল না গর্ভবতী ছাগলও!

মাতালের কাছে রেহাই পেল না গর্ভবতী ছাগলও!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৮:২২ ১৭ জুন ২০১৯   আপডেট: ১৮:৩৭ ১৭ জুন ২০১৯

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

মদ খেতে খেতে এক পর্যায়ে তা মাত্রারিক্ত হয়ে যায়। হয়ে গেলেন মাতাল। পথেই দেখা পেল এক গর্ভবতী ছাগলের। আর ওই  ছাগল তার মাতলামির খেসারত দিলো। অবশেষে ছাগলটি লাগাতার ধর্ষণের শিকার হয়। 

ভারতের বিহারে মঙ্গলবার বিকেলে এ অবাক করা কাণ্ডটি ঘটেছে। এমনিতেই ১৬টি কুকুরছানা হত্যার প্রতিবাদে গর্জে উঠেছে কলকাতা। প্রতিবাদের ঝড় বইছে চারদিকে। এরই মধ্যে ঘরে পালিত প্রাণীর ওপর এমন বিকৃত মানসিকতার অত্যাচারের ঘটনা প্রকাশ পেলো। 

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন বলছে, পাটনার পরসা বাজারের এক নারী অনেক খোঁজাখুজির পরও তার গর্ভবতী ছাগলটির কোনো সন্ধান পাচ্ছিলেন না। পরের দিন সকালেই নিজ বাড়ির সামনে ছাগলটিকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করে ওই নারী। এরপরই পুলিশে অভিযোগ জানান তিনি।

এদিকে পুলিশ এ ঘটনায় সিমরাজ নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে। সিমরাজ পেশায় ঠিকাদার। তিনি মাতাল অবস্থায় গর্ভবতী ছাগলটিকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করেন বলে অভিযোগ ওঠে। যৌন অত্যাচারে অসুস্থ হয়ে মারা যাওয়ার পর মালিকের বাড়ির সামনেই ছাগলটিকে ফেলে চম্পট দেয় অভিযুক্ত। এরই মধ্যে পুলিশের কাছে সে অভিযোগ স্বীকার করেছে।

তবে ভারতে এই ঘটনা এবারই প্রথম নয়, গত বছর জুলাই মাসে হারিয়ানায় এক গর্ভবতী ছাগল গণধর্ষণের শিকার হয়। পরে তদন্তে নেমে আটজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

সূত্র: এবেলা

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর