Alexa মধুর রাতে স্বামী-স্ত্রীর ‘যা জানা’ দরকার

মধুর রাতে স্বামী-স্ত্রীর ‘যা জানা’ দরকার

অনন্যা চৈ ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:৫৮ ২৯ মে ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

বিয়ে হলো দুইটি হৃদয়ের মেলবন্ধন। এই দিন বৈধ চুক্তির মাধ্যমে দু’জন মানুষের মধ্যে মনের সম্পর্ক স্থাপিত হয়। আর সে দিন থেকেই একজন পুরুষ ও নারীর মধ্যে দাম্পত্য জীবনের শুরু হয়। এরপর মূলত স্বামী-স্ত্রীর বাসর রাত আসে। প্রতিটি পুরুষ ও নারীর জীবনে একবার অন্তত এই দিনটি আসে। তাই স্বামী-স্ত্রীর জন্যও অত্যন্ত মধুর রাত এটি। 

তবে এই রাতে স্বামীদের উচিত স্ত্রীদের কাছে কিছু প্রশ্নোত্তর জেনে নেয়া, যাতে অদূর ভবিষ্যতে তাদের পথচলা সুগম হয়। আর দাম্পত্য জীবনে যেন প্রকৃত সুখ আসে।

চলুন জেনে নেয়া যাক এই ১০টি প্রশ্ন সম্পর্কে:

কেন ভালোবাসো আমাকে?

মূলত বাসর রাতে একজন স্ত্রীকে স্বামীর এই প্রশ্নটা প্রথম করতে হবে। তবে এটা অনেকেই করেন না। তবে করা কিন্তু খুব জরুরি। মনে রাখবেন, এই প্রশ্নের উত্তর যদি এমন হয়, তুমি অনেক সুন্দর বলে ভালবাসি। তাহলে মনে রাখবেন, আপনার বয়স বাড়লে, সৌন্দর্য নষ্ট হলে তখন আর এই ভালোবাসার মানুষ থাকবে না। তখন দুজনের ভালোবাসাও ফুরিয়ে যাবে, সম্পর্কও ছিন্ন হতে থাকবে।

পুরো জীবন আমার সঙ্গে কাটাতে চাও কেন?

এরপর স্ত্রীর কাছে যে প্রশ্নটি করবেন, সেটি হলো- তুমি পুরো জীবনটা আমার সঙ্গে কাটাতে চাও কেন? পরে একই প্রশ্ন আপনি আপনাকে করুন। মনে রাখবেন, যদি দুজনের উত্তর একই হয়, তাহলে দাম্পত্য জীবন সুখের হবে। কারণ এর উত্তর একই হওয়ার অর্থ, দুজনের মনের মিল হওয়া। পরে নিজেই বুঝে যাবেন, মানসিকতা মিলছে কিনা।

ভবিষ্যতে নিয়ে তোমার পরিকল্পনা কি?

আপনার স্ত্রী ভবিষ্যৎ সম্পর্কে কী ভাবেন। যা আপনি ভাবছেন, তাই কী তিনি ভাবছেন? মূলত তিনি সন্তান সম্পর্কে কী ভাবেন, ভালোবাসার ফসল নাকি বংশ বৃদ্ধির হাতিয়ার? এছাড়া বংশ বিস্তারে যদি কারো সমস্যা থাকে, আর সে ক্ষেত্রে যদি বাচ্চা না হয়, তাহলে করণীয় কী? প্রভৃতি বিষয় জেনে রাখবেন।

গুরুত্বপূর্ণ বিষয় কী?

আপনার স্ত্রী সবচেয়ে কোন বিষয়টি বেশি ভাবেন, কোন জিনিসটিকে বেশি গুরুত্ব দেন? প্রভৃতি বিষয় জেনে রাখবেন। আর মনে রাখবেন, ওই দিনের পর এই ব্যাপারে আপনি কোন হস্তক্ষেপ করবেন না। কারণ তার গুরুত্ব দেয়া বিষয়ে হস্তক্ষেপ করা মানে জীবনটাকে বিষিয়ে তোলা। তাই এটা একেবারে করার চিন্তা করবেন না।

চেহারার পরিবর্তন আসলে কী করবে?

আপনি আপনার স্ত্রীকে আরেকটি প্রশ্ন করে রাখবেন, সেটি হলো- সবে তো বিয়ে হলো। এরপর আস্তে আস্তে বয়স্ক হতে থাকব, এরপর চেহারার পরিবর্তন আসবে, তখন তুমি কী করবে? জানি এই উত্তর স্ত্রীরা সহজে দিতে চাইবে না। কারণ, ছেলেদের চেয়ে মেয়েদের দ্রুত বয়সের চাপ চলে আসে। তাই সে নিজের কাছে উত্তরটি লুকাবে। তারপরেও তার কাছ থেকে জেনে রাখার চেষ্টা করবেন উত্তরটি। 

যদি আমার বড় অসুখ হয়, তুমি কী করবে?

এই প্রশ্নটির উত্তর হয়ত কোনো নারীরা দিবে না। তবে এর জবাব আপনাকে সাহায্য করবে তাকে আরো ভালোভাবে বুঝতে। এতে কোনো ভুল ধারণা থাকবে না মনে।

দাম্পত্যে কী কখনো প্রতারণা করবে?

স্বামী স্ত্রীর দাম্পত্য জীবন শুরু হয় বাসরের দিন থেকে। তাই এই দিন এই প্রশ্নটি অবশ্যই করবেন যে, আজকের পর তুমি কোনো প্রতারণা করবে? যদি এই উত্তর পজেটিভ হয়, তাহলে দাম্পত্য সুখ নিশ্চিত। আর যদি হাসি তামাশা টাইপ উত্তর হয়, তাহলে সঠিকটা আপনাকে বুঝে নিতে হবে।

আমি কোনো ভুল করে ফেললে, আমার পাশে থাকবে?

ধরুন, এমন কোনো ভুল আপনি করে ফেলেছেন, যেখানে পুরো পৃথিবী আপনার বিপক্ষে চলে গেছে। তখন স্ত্রী আপনার পাশে থাকবে কিনা, সেটা আগে থেকে জেনে নিন। একজন মানুষ অন্ধভাবে বিশ্বাস করেও ভালোবেসে পাশে থাকবে আপনার, পৃথিবীতে এর থেকে সুন্দর আর কিছুই হতে পারে না। এর চাইতে বেশি নিরাপদও না।

বিয়ের পর আমরা স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারব তো?

স্বামী-স্ত্রীর এই বিষয়টা উভয়ের জানা উচিত যে, বিয়ের পর নতুন একটি অধ্যায়ের শুরু হতে যাচ্ছে। এরপর আমরা আমাদের মতো স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারব তো? মূলত সবারই কিছু স্বপ্ন থাকে, সে স্বপ্নগুলো ছুঁতে পাড়ার জন্য জীবন সঙ্গিনীকেও সঙ্গে থাকতে হয়। তাই এই সব প্রশ্নের উত্তর খুঁজা অনেক জরুরি।

আমাদের ভবিষ্যত নিয়ে কী ভেবেছো?

দাম্পত্য জীবন মানে একটা নতুন অধ্যায়ের শুরু। এরপর থেকে দুজনের ঠিকানা হয় একটি। আর জীবনের এই অধ্যায়ে চাই প্রচুর পরিকল্পনা। কোনো অগ্রিম পরিকল্পনা ছাড়া দাম্পত্য জীবন কখনোই সফল হতে পারে না। আপনারও নিশ্চয়ই কিছু পলিকল্পনা আছে? তাহলে আগেই জেনে রাখুন হবু স্ত্রীর পরিকল্পনা কী। এরপর আপনারটা তাকে শেয়ার করুন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসআই