Alexa ভ্রাম্যমাণ আদালতে ধরা খেল ভুয়া চিকিৎসক

ভ্রাম্যমাণ আদালতে ধরা খেল ভুয়া চিকিৎসক

মাটিরাঙ্গা (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:২২ ১৮ জানুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৬:২৭ ১৮ জানুয়ারি ২০২০

ছবি: ডেইলি ‍বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি ‍বাংলাদেশ

খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা উপজেলায় মো. সিফাত হাসান শাহীন নামে এক ভুয়া চিকিৎসককে আটক করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। 

শনিবার দুপুরে মাটিরাঙ্গার ইউএনও বিভীষণ কান্তি দাশ জামিলা ফার্মেসিতে এ আদালত পরিচালনা করেন। সিফাত হাসান শাহীন ঢাকার কদমতলীর ধনিয়া গ্রামের মো. জজ মিয়ার ছেলে।

আটক সিফাত ১৯৯৩ সালে এসএসসি ও ১৯৯৫ সালে এইচএসসি পাশ করেছেন। তবে জাতীয় পরিচয়পত্রে তার জন্ম তারিখ উল্লেখ করা হয়েছে ১৭ মার্চ ১৯৯৪। এছাড়া তিনি নিজেকে এমবিবিএস (ঢাকা), এফসিপিএস (মেডিসিন), সিসিডি (বারডেম) ও ২৮তম বিসিএস দাবি করলেও বৈধ কোনো প্রমাণপত্র দেখাতে পারেননি।

মাটিরাঙ্গার ইউএনও বিভীষণ কান্তি দাশ বলেন, বাংলাদেশ মেডিকেল ও ডেন্টাল কাউন্সিল আইন (২০১০)-এর ২৯ ধারায় ভুয়া নাম-পদবী ব্যবহার করার দায়ে এক বছরের জেল প্রদান করা হয়েছে।

অভিযানে অন্যান্যের মধ্যে বিজিসি ট্রাস্ট মেডিকেল কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ডা: ময়নাল হোসেন, মাটিরাঙ্গা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডা: মো. ইমরান হোসেন, ডা: নাহিদা আক্তার, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মো. ওমর ফারুক, ডা: মো. শরিফুল ইসলাম ও মাটিরাঙ্গা থানার এসআই খুরশিদ আলম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর