Alexa ভালোবাসা বেঁচে থাকার রসদ জোগায়: জয়া

ভালোবাসা দিবস স্পেশাল

ভালোবাসা বেঁচে থাকার রসদ জোগায়: জয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১২:০৭ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১২:১৮ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

চলচ্চিত্র অভিনেত্রী জয়া আহসান। তাকে দুই বাংলার মানুষের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেয়ার জন্য এই কয়েকটি শব্দই যথেষ্ট। তার ব্যক্তিগত অনেক বিষয়ে পাঠকদের আগ্রহ চরমে। তাই ডেইলি বাংলাদেশ-এর প্রতিবেদকের একটু ভিন্ন স্বাদের প্রশ্নের মুখোমুখি হয়েছেন তিনি। পাঠকদের জন্য সাক্ষাৎকারটি তুলে ধরা হলো-

কেমন আছেন ভালোবাসার মৌসুমে?

আমার কাছে রোজই ভালোবাসা দিন। আর আমি সবসময় ভালো থাকার চেষ্টা করি!

ভালোবাসার সপ্তাহ তাহলে আপনার ভালোই কাটলো।  আপনার কাছে ভালোবাসার অর্থটা কি?

ভালোবাসার অর্থ! আমার কাছে এটা একটা অনুভূতি। মানুষ তো এই ভালোবাসার টানেই বেঁচে থাকে। এটা বেঁচে থাকার রসদ জোগায়। তাই প্রতিটি দিনই হোক ভালোবাসার। তবে কেউ যদি একটা দিন আলাদাভাবে আনন্দ করে, মজা করে, তাতে তো কোনো ক্ষতি নেই। ভালোবাসায় থাকাটাই হচ্ছে আসল কথা।

প্রশ্নটা আমার না, পাঠকের! আপনি কি প্রেম করছেন?

প্রেম ছাড়া বাঁচা যায় নাকি। প্রেম করবো না কেন? বছরের পর বছর ধরে প্রেম করছি। প্রেম করলে শরীর–মন দুটোই ভালো থাকে।

তাহলে আপনি বিয়ে করছেন কবে?

বিয়ে! (হাসি) করতে পারি! ঠিক নেই।

আপনার চির সবুজ থাকা নিয়ে তো অনেকেই গবেষণা শুরু করেছেন! এত সুন্দর মসৃণ ত্বকের রহস্য কী?

আমি একটা নিয়মিত ব্যায়াম করার চেষ্টা করি। একটা সময়ে এত বেশি ব্যায়াম করেছি, শরীর টোনড হয়েছে। অনেকেই জানেন না, যারা নিয়মিত ব্যায়াম করেন, তাদের ত্বকে বাড়তি উজ্জ্বলতা আসে। রাতে দু–তিনটি ক্রিম লাগাই। কখনো কখনো নারকেল তেল মুখে মেখে ঘুমাতে যাই। এই তো! আর কেউ কোনো রহস্য খুঁজে পেলে বলবেন (হাসি)! 

আপনার প্রযোজিত ও অভিনীত ‘দেবী’ তো সুপারহিট। এটা কতটা ভালোলাগার ব্যপার?

এটাই তো সবচেয়ে ভালো লাগার বিষয়। এত কষ্ট করে দর্শকদের জন্য ছবি বানানো হয়, তারা পছন্দ করেছে এটাই বড় বিষয়। সবাই দেখে যদি সন্তুষ্ট হন, তবে তো শিল্পী হিসেবে অবশ্যই ভাল লাগে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে