ভাঙনের মুখে পাটুরিয়া ঘাট

ভাঙনের মুখে পাটুরিয়া ঘাট

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:৩৮ ২৮ মে ২০২০  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

পদ্মা-যমুনা নদীতে পানি বৃদ্ধির ফলে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ও আরিচা ঘাটে ভাঙন দেখা দিয়েছে। এরইমধ্যে ঘাট এলাকার বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ অংশ বিলীন হয়ে গেছে। এতে শঙ্কিত হয়ে পড়েছেন ঘাট এলাকার মানুষ।

ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের প্রভাবে পদ্মা পাড়ের পূর্বাংশে পাটুরিয়া ফেরি ঘাট এলাকায় ব্যাপক ভাঙনের সৃষ্টি হয়েছে।  এরইমধ্যে পাটুরিয়ার ৩, ৪ ও ৫  নম্বর ফেরি ঘাট এলাকা বেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। 

এছাড়া যমুনা তীরের আরিচার উত্তরের নিহালপুর থেকে দক্ষিণের প্রায় দুই কিলোমিটার এলাকা জুড়ে ভাঙনে স্থানীয়দের মাঝে আতঙ্ক সৃস্টি হয়েছে। আরিচা ঘাটের কাছে ভাঙন রোধে পানি উন্নয়ন বোর্ড চলতি মৌসুমে অনেক টাকা ব্যয়ে ড্রেজিং কার্যক্রম চালালেও তাতে কোনো ফল হয়নি। এতে নদী ভাঙন আরো তীব্র আকার ধারন করেছে।

বুধবার সকালে বিআইডব্লিউটিএ চেয়ারম্যান কমডোর গোলাম সাদিক পাটুরিয়া ঘাটের ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেছেন। তিনি ভাঙন রোধে প্রকৌশল বিভাগকে তাৎক্ষণিক কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন। 

মানিকগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মাঈন উদ্দিন জানান, বৃহস্পতিবার থেকে আরিচা ঘাটের কাছে যমুনার ভাঙন ঠেকাতে প্রাথমিকভাবে প্রায় ৬০ লাখ টাকা ব্যয়ে ১৩ হাজার জিও ব্যাগ ফেলার প্রকল্প শুরু করবে। 

বিআইডব্লিউটিএ আরিচা অঞ্চলের নির্বাহী প্রকৌশলী নিজাম উদ্দিন পাঠান জানান, সংস্থার চেয়ারম্যান ও চিফ ইঞ্জিনিয়ারের তাৎক্ষণিক নির্দেশে জরুরি ভিত্তিতে পাটুরিয়া ঘাট এলাকায় জিও ব্যাগ ফেলার সিদ্ধান্ত হয়েছে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে ভাঙন রোধ সম্ভব হবে।

সংস্থার চেয়ারম্যানের বরাত দিয়ে তিনি আরো জানান, পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া রুটে ফেরি-লঞ্চ চলাচল স্বাভাবিক রাখতে ঘাট সংস্কারের কোনো বিকল্প নেই। তাই জরুরি ভিত্তিতে পাটুরিয়ার তিনটি ঘাট মেরামতের কাজ চলছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড মানিকগঞ্জ অঞ্চলের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মাঈন উদ্দিন জানান, যমুনার তীরবর্তী আরিচা এলাকায় ভাঙন রোধে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে জিও ব্যাগ প্রকল্পের প্রাথমিক কাজ শুরু হবে। প্রকল্পের গতি ও পরিধি বৃদ্ধির জন্য অতিরিক্ত বরাদ্দের আবেদন করা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ