Alexa বড়দিনে জেরুজালেম ও বেথেলহেম ভ্রমনের সুযোগ পাবে না খ্রিস্টানরা

বড়দিনে জেরুজালেম ও বেথেলহেম ভ্রমনের সুযোগ পাবে না খ্রিস্টানরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১২:৫৮ ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৩:০১ ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

খ্রিস্টানদের বড়দিন উদযাপনের জন্য চলতি বছরের গাজা উপত্যকার জেরুজালেম ও বেথেলহেমের মতো পবিত্র শহরগুলোতে ভ্রমণের সুযোগ দেয়া হবে না। বৃহস্পতিবার ইসরাইলি কর্তৃপক্ষ এমন দাবি করেছেন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে সামরিক যোগাযোগ বিষয়ক একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, গাজার খ্রিস্টানদের দেশের বাইরে যেতে অনুমতি দেয়া হলেও তাদের ইসরাইল ও অধিকৃত পশ্চিমতীরে যাওয়ার সুযোগ দেয়া হচ্ছে না। 

তিনি আরো বলেন, ২০ লাখ জনগোষ্ঠীর সরু উপকূলীয় উপত্যকাটিতে এক হাজারের মতো খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বী রয়েছেন। তাদের অধিকাংশই গ্রিক অর্থোডক্স। নিরাপত্তা পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে গাজাবাসীকে ইসরাইলের অ্যালেনবি ব্রিজের সীমান্ত দিয়ে দেশের বাইরে যাওয়ার সুযোগ দেয়া হচ্ছে। কিন্তু ইসরাইল ও পশ্চিমতীরের শহরগুলোতে তারা ভ্রমণ করতে পারবেন না।

চলতি বছরে ভ্রমণের অনুমতি দেয়ার সাধারণ নীতি লঙ্ঘন করছে দখলদার ইসরাইল। গত বছর গাজার সাতশ খিস্টানকে জেরুজালেম, বেথেলহেম, নাসিরাহ ও অন্যান্য পবিত্র শহরে ভ্রমণের সুযোগ দেয়া হয়েছিল।

পবিত্র ধর্মীয় উৎসবে প্রতিবছর এসব শহরে হাজার হাজার তীর্থযাত্রী অংশগ্রহণ করেন।

ইসরাইলি মানবাধিকার গোষ্ঠী গিশা বলছে, ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডের দুটি অংশের মধ্যে প্রবেশ নিষেধাজ্ঞায় কড়াকড়ি আরোপ করতে এই নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে। পশ্চিমতীর ও গাজাকে বিচ্ছিন্ন করার নীতিকে আরো তীব্রতর করতেই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

তবে ইসরাইলের এমন উদ্যোগের নিন্দা জানিয়েছেন খ্রিষ্টান নেতারা। সিদ্ধান্ত পরিবর্তনে ইসরাইলি কর্তৃপক্ষের কাছে তারা আবেদন করবেন বলে জানিয়েছেন।

স্থানীয় এক গির্জা নেতার উপদেষ্টা ওয়াদি আবু নাসসার বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন জায়গা থেকে অন্যান্য লোক বেথেলহেম সফরের সুযোগ পাচ্ছেন। কাজেই আমি মনে করি, গাজার লোকজনেরও সেই অধিকার থাকা উচিত।

সূত্র: রয়টার্স

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ