Alexa ব্রিজের নিচে স্বেচ্ছায় তিনশ’ পথশিশুকে পড়ান মুদি দোকানদার

ব্রিজের নিচে স্বেচ্ছায় তিনশ’ পথশিশুকে পড়ান মুদি দোকানদার

ফিচার ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১১:২২ ১৪ অক্টোবর ২০১৯  

ছবি : সংগৃহীত

ছবি : সংগৃহীত

দু’জন পথশিশুকে ২০০৬ সালে ব্রিজের নিচে পড়াতেন তিনি। এরপর ধীরে ধীরে বাড়তে থাকলো পড়তে আসা শিশুদের সংখ্যা। ২০১৯ সালে এসে পড়ুয়ার সংখ্যা তিনশ’ ছাড়িয়েছে। তবে এখনকার সবাই পথশিশু নয়; কেউ রিকশাচালকের সন্তান, আবার কারো কারো বাবা দিনমজুর।

দিল্লির যমুনা নদীর পাড়ের কাছে মেট্রো ব্রিজের নিচে গত ১৩ বছর ধরে এই স্কুল চালাচ্ছেন রাজেশ কুমার শর্মা। স্কুলটির কাছেই তার দোকান। সরকার বা কোনো এনজিও-র সাহায্য ছাড়াই চলছে ‘দ্য ফ্রি স্কুল আন্ডার দ্য ব্রিজ’ নামের এই স্কুল।

রাজেশ কুমার শর্মা উত্তর প্রদেশের বাসিন্দা। বয়স পঞ্চাশ ছুঁই ছুঁই। পরিবারের পাঁচজন সদস্যের দায়িত্ব তার একার কাঁধে। ছোট একটি মুদির দোকান থেকেই তার রোজগার। তবুও রাজেশ স্কুলটা চালিয়ে যাচ্ছেন। তিনি জানান, সরকার থেকে কোনোদিন কোনো সাহায্য পাননি তিনি। তবে তাতে তার কোনো দুঃখ নেই। নিজের ইচ্ছেতেই বাচ্চাদের পড়িয়ে আনন্দ পান তিনি।

রাজেশের এই স্কুলে শুরুর দিকে সবাই পথশিশু হলেও এখন অনেকেই আসেন। কারো কারো মা-বাবার দিন চলে ভিক্ষার টাকায়। আবার কারো বাবা রিকশাচালক। এতগুলো শিক্ষার্থীকে পড়াতে রাজেশ যখন হিমশিত খাচ্ছিলেন তখন এগিয়ে এসেছেন লক্ষ্মী চন্দ্র, শ্যাম মাহাতো, রেখা, সুনীতা, মনিষা ও চেতন শর্মা নামে আরও ছ’জন শিক্ষক। তারা কেউই বেতন নেন না এখানে পড়ানোর জন্য।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে