ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাড়িতে ডাকাতি, তিন লাখ টাকা-স্বর্ণালংকার লুট

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাড়িতে ডাকাতি, তিন লাখ টাকা-স্বর্ণালংকার লুট

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২১:৪১ ১ জুলাই ২০২০  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সদর উপজেলার সুলতানপুর ইউপির সূত্রধরপাড়ার এক বাড়িতে ডাকাতি হয়েছে। গত সোমবার রাতে সূত্রধর পাড়ার দীপক মজুমদারের বাড়িতে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। 

ডাকাতেরা বাড়িতে থাকা নারীদের বেদম মারধর করে তিন লাখ টাকা এবং চার ভরি স্বর্ণলংকার নিয়ে যায়।

গৃহবধূ রিনা রানী মজুমদার বলেন, সোমবার রাত আড়াইটার দিকে ৫-৬ জনের মুখোশ পরা সশস্ত্র ডাকাতদল তাদের নির্মাণাধীন ভবনের জানালার গ্রিল ভেঙে ঘরে প্রবেশ করে। পরে ডাকাতেরা অস্ত্রের মুখে তাকে, তার মেয়ে ও ভাতিজিকে বেদম মারধর করে ঘরে থাকা তিন লাখ টাকা এবং এবং চার ভরি স্বর্ণালংকার নিয়ে যায়। পরে তাদের চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসলে ডাকাতেরা চলে যায়।

তিনি আরো বলেন, ডাকাতেরা যাওয়ার সময় ঘরে একটি রামদা ফেলে যায়। আমরা এ ঘটনার বিচার চাই।

কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার ফতেহাবাদ থেকে বেড়াতে আসা রিনা রানীর ভাতিজি জোনাকি মজুমদার বলেন, সেই ভয়ংকর রাতের কথা বলতে পারব না। ওরা রুমে ডুকেই আমাদেরকে বেদম মারধর করে। পরে তারা ঘর থেকে তিন লাখ টাকা এবং এবং চার ভরি স্বর্ণালংকার নিয়ে যায়।

সূত্রধর পাড়ার একাধিক বাসিন্দা জানান, এলাকায় বখাটেদের উপদ্রব বেড়ে গেছে। বিয়ের উপযুক্ত মেয়ে নিয়ে এলাকায় আতঙ্কের মধ্যে থাকতে হচ্ছে।

এ ঘটনায় বুধবার দুপুরে রিনা মজুমদারের ছেলে বিপ্লব মজুমদার বাদী হয়ে এলাকার ইমন মিয়াকে প্রধান আসামি করে ছয়জনের নাম উল্লেখ করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে সদর উপজেলা চেয়ারম্যান লায়ন ফিরোজুর রহমান ওলিও বলেন, বিষয়টি পরিকল্পিত মনে হচ্ছে। ভুক্তভোগী পরিবারের লোকজন বিষয়টি আমাকে জানায়নি। জড়িতদের ব্যাপারে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে।

এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ সেলিম উদ্দিন বলেন, খবর পাওয়ার পরই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্তসাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ