ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নতুন আন্তনগর ট্রেন চালুর দাবি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নতুন আন্তনগর ট্রেন চালুর দাবি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি   ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১২:৫৭ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে ঢাকাগামী নতুন আন্তনগর ট্রেন চালুর দাবিতে জেলা নাগরিক ফোরামের আয়োজনে অবস্থান কর্মসূচি করা হয়েছে। 

শনিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলস্টেশন প্লাটফর্মে এই কর্মসূচি পালন করা হয়। 

অবস্থান কর্মসূচিতে জেলার বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন।

জেলা নাগরিক ফোরামের সভাপতি পীযুষ কান্তি আচার্যের সভাপতিত্বে অবস্থান কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি নীহার রঞ্জন সরকার, সাধারণ সস্পাদক রতন কান্তি দত্ত, প্রেসক্লাবের সভাপতি খ আ ম রশিদুল ইসলাম, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আহ্বায়ক আবদুন নূর, টেলিভিশন জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি মনঞ্জুরুল আলম,
সাবেক সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবু হুরাইরাসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

বক্তারা বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া স্টেশন পূর্বাঞ্চলীয় রেল স্টেশন হিসেবে সরকারকে রেল টিকেট বিক্রি বাবদ বিশাল রাজস্ব দিয়ে আসছে। যাত্রীর টিকেটের তুলনায় কমপক্ষে ১০ গুন যাত্রী টিকেটের সমমূল্য টিকেট ক্রয় করে আসনবিহীন যাতায়াত করে, যা বাংলাদেসের সর্বোচ্চ। 

টিকেট স্বল্পতার কারণে অনলাইনে ঢাকা বা ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে চট্রগ্রাম, সিলেট রুটের বিভিন্ন স্টেশনের টিকেট অতিরিক্ত মূল্যে ক্রয় করতে হয়। 

বক্তারা ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে ঢাকা আন্তনগর নতুন ট্রেন চালু, কালনী ও বিজয় এক্সপ্রেস যাত্রাবিরতি, চলমান ট্রেনের আসন বৃদ্ধি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশনকে প্রথম শ্রেণির মর্যাদা এই চার দফা দাবি জানান। 

যতদিন পর্যন্ত এই চার দফা দাবি মানা না হবে তত দিন আন্দোলন চলবে। ২৯ ফেব্রুয়ারির মধ্যে দাবি মানা না হলে ১ মার্চ থেকে কঠোর আন্দোলন দেয়া হবে বলে জানান বক্তারা।

এ সময় সিলেট থেকে ঢাকাগামী কালনী এক্সপ্রেস ট্রেনটি ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশনে বাধার মুখে পড়ে। পরে প্রশাসনের আশ্বাসে ট্রেনটি ঢাকার উদ্দ্যেশে ছেড়ে যায়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে