তরুণীর চুল কেটেও ক্ষান্ত হয়নি তরুণ, ঘটালো আরো ভয়ংকর কাণ্ড!

তরুণীর চুল কেটেও ক্ষান্ত হয়নি তরুণ, ঘটালো আরো ভয়ংকর কাণ্ড!

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৩:২৫ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৩:৩১ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এক তরুণীকে ডেকে নিয়ে ফাঁসাতে মধ্যযুগীয় নির্যাতন, চুল কেটে, গরম ছ্যাঁকা দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় তরুণকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শনিবার রাতে পৌর এলাকার কাউতলীতে এ ঘটনা ঘটে।

গ্রেফতার মোস্তাক আহমেদ ফয়সাল হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার হরষপুরের বাসিন্দা।

নির্যাতনের শিকার তরুণী বলেন, আমি ও ফয়সাল পূর্ব পরিচিত। শনিবার দুপুরে ফয়সাল ফোন দিয়ে বলে তার স্ত্রীর সঙ্গে ঝামেলা হয়েছে। সমাধানের জন্য আমাকে তার বাসায় আসতে হবে। তার কথামতো আমি আশুগঞ্জের উজানভাটি হোটেলের সামনে আসি। সেখান থেকে আমাকে কাউতলীতে শ্বশুরের বাসায় নিয়ে যায় সে। এরপর হঠাৎ আমার মোবাইল-টাকা ছিনিয়ে নেয়। আরো টাকা চাওয়ায় আমি ভাইয়ের কাছ থেকে ১০ হাজার টাকা এনে দেই।

তিনি আরো বলেন, এক পর্যায়ে একটি খালি স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে আরো টাকার জন্য নির্যাতন শুরু করে ফয়সাল। আমার চুল কেটে দিয়ে, শরীরের বিভিন্ন স্থানে গরম ছ্যাঁকা দেয়। এরপর ৯৯৯-এ কল করে শিশু অপহরণকারী বলে ফাঁসানোর চেষ্টা করে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার ওসি মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন বলেন, ৯৯৯-এ কল পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। সেখানে গিয়ে ওই তরুণীর ওপর নির্যাতনের চিহ্ন দেখে বুঝতে পারি পুরো বিষয়টি সাজানো। পরে মোস্তাক আহমেদ ফয়সালকে গ্রেফতার করি। ঘটনাস্থল থেকে টাকা, খালি স্ট্যাম্প উদ্ধার করা হয়েছে।

ওসি আরো জানান, গ্রেফতার ফয়সাল চিহ্নিত অপরাধী। তার বিরুদ্ধে হবিগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ ও বিজয়নগর থানায় হত্যা, চুরি, ডাকাতি, ছিতাই, অস্ত্রসহ ১৬ টি মামলা রয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর