ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জিলাপি বিতরণ নিয়ে খুন!

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জিলাপি বিতরণ নিয়ে খুন!

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:৪৭ ৩ জুলাই ২০২০   আপডেট: ২০:৫০ ৩ জুলাই ২০২০

নিহত হেবজু মিয়া সরকারের মরদেহ। ছবি: সংগৃহীত।

নিহত হেবজু মিয়া সরকারের মরদেহ। ছবি: সংগৃহীত।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে এক ইউপি চেয়ারম্যানের বাবার মৃত্যুবার্ষিকী ও নিজের রোগমুক্তির দোয়া মাহফিলের জিলাপি বিতরণ নিয়ে একজন খুন হয়েছেন।

শুক্রবার দুপুরে উপজেলার লাউর ফতেপুর ইউপির আহাম্মদপুর গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। নিহত ব্যক্তির নাম হেবজু মিয়া সরকার। তিনি ওই এলাকার সরকার বাড়ির মনির হোসেন সরকারের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, ওই ইউপির চেয়ারম্যান ফারুক সরকারের বাবার মৃত্যুবার্ষিকী ও তার রোগমুক্তি কামনায় গ্রামের সরকার বাড়ির মসজিদে জুমার পর বিশেষ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। দোয়া শেষে জিলাপি বিতরণের সময় বিশৃঙ্খলা শুরু হয়। এতে জিলাপি নিয়ে হেবজু মিয়ার সঙ্গে নিজের চাচাতো ভাই মামুন সরকারের কথা কাটাকাটি হয়।

একপর্যায়ে হেবজুকে লক্ষ্য করে লাঠি দিয়ে আঘাত করেন মামুন। এতে হেবজু মাঠিতে লুটিয়ে পড়েন। তাৎক্ষণিক হেবজুকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় নবীনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে মেডিকেল অফিসার ডা. ইখতিয়ার উদ্দিন মৃত ঘোষণা করেন। 

লাউর ফতেপুর ইউপির চেয়ারম্যান ফারুক সরকার বলেন, বাবার মৃত্যুবার্র্ষিকী ও নিজের অসুস্থতার জন্য মসজিদে আজ দোয়ার আয়োজন করা হয়। দোয়া শেষে জিলাপি বিতরণ করতে গিয়ে খুনের ঘটনা ঘটেছে যা খুবই দুঃখজনক।

নবীনগর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) রুহুল আমীন বলেন, হেবজুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে খুনের ঘটনায় এখনো মামলা দায়ের হয়নি। বিষয়টি খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ