Alexa ব্যবহারকারীর মানসিক চাপ কমাতে লাইক সংখ্যা লুকালো ইনস্টাগ্রাম

ব্যবহারকারীর মানসিক চাপ কমাতে লাইক সংখ্যা লুকালো ইনস্টাগ্রাম

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:০০ ১৮ জুলাই ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

জনপ্রিয় ফটো শেয়ারিং অ্যাপ ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারকারীর ওপর থেকে ‘মানসিক চাপ কমাতে’ বেশ কিছু দেশে পোস্টে পাওয়া লাইকের সংখ্যা লুকিয়ে রাখছে। বৃহস্পতিবার থেকেই এই পরীক্ষামূলক কাজটি শুরু করছে ইনস্টাগ্রাম। ব্যবহারকারীদের প্রতিক্রিয়া কেমন হয় বা তারা এটি কীভাবে গ্রহণ করে তার ওপর নির্ভর করে সিদ্ধান্তটি পরিবর্তন বা চূড়ান্ত করা হবে।

লাইক সংখ্যা সরিয়ে ফেলার বদলে অস্ট্রেলিয়া এবং জাপানসহ বেশ কয়েকটি দেশের ইনস্টাগ্রামাররা অন্যদের পোস্টের নিচে শুধু লাইকদাতা একজনের নাম এবং পাশে ‘and others’ (এবং অন্যরা) লেখা দেখতে পাবেন। তবে নিজের পোস্টে কতগুলো লাইক পেলেন তা দেখতে পাবেন প্রত্যেক ব্যবহারকারীই।

বিবিসি জানিয়েছে, এই পরীক্ষাটি প্রথমে শুধু কানাডাতে গত মে মাসে শুরু করেছিল ইনস্টাগ্রাম। এখন তা শুরু করা হলো অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, ইটালি, জাপান এবং ব্রাজিলে। বাংলাদেশ আপাতত এই পরীক্ষার অধীনে নেই।

বিভিন্ন গবেষণার ভিত্তিতে একাধিকবার এ তথ্য উঠে এসেছে যে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে লাইক-কমেন্ট কম পেলে তা এসব মাধ্যম ব্যবহারকারী, বিশেষ করে কমবয়সী ব্যবহারকারীদের মধ্যে হীনম্মন্যতা ও অপূর্ণতার অনুভূতি তৈরি করে।

সেখান থেকে এক পর্যায়ে তাদের অনেকে হতাশায় ডুবে যায়, যা থেকে আত্মহত্যার মতো ঘটনা ঘটারও নজির রয়েছে। এ ধরনের মানসিক চাপ কমানোর চেষ্টা হিসেবেই লাইকের সংখ্যা লুকানোর পদক্ষেপটি নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ইনস্টাগ্রাম কর্তৃপক্ষ।

ইনস্টাগ্রামের বর্তমান মালিক প্রতিষ্ঠান ফেসবুকের অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড অঞ্চলের নীতিমালা বিষয়ক পরিচালক মিয়া গারলিক এক বিবৃতিতে বলেছেন, আমরা আশা করছি এই পরীক্ষা একটি পোস্ট কতগুলো লাইক পেল সেই চাপ থেকে পোস্টদাতাকে মুক্তি দেবে, যেন আপনি নিজের ভালোবাসার জিনিসগুলো শেয়ার করার দিকেই শুধু মনোযোগ দিতে পারেন।

তিনি বলেন, এই পরীক্ষার উদ্দেশ্য হলো ব্যবহারকারীকে কেউ বিচার বা যাচাই করছে, এমন অনুভূতি থেকে কিছুটা হলেও মুক্তি দেবে। এছাড়া এই পরিবর্তনটি মানুষকে লাইকের প্রতি কম এবং নিজেদের গল্প বলার প্রতি বেশি মনোযোগ দিতে সাহায্য করছে কিনা তা ইনস্টাগ্রামকে জানাবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমএস

Best Electronics
Best Electronics