বোনের কাছে ফিরতে আকুতি

বোনের কাছে ফিরতে আকুতি

ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১০:৫১ ২৬ মে ২০১৯   আপডেট: ১২:১১ ২৬ মে ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

মায়াবি চেহারা। বয়স আনুমানিক ১২ বছর। নাম তার বৃষ্টি। বোনের সঙ্গে ঢাকায় বেড়াতে এসে হারিয়ে যাওয়া এ কিশোরীকে গত ১৬ মে সায়দাবাদ বাসস্ট্যান্ডে বাসের দুই হেলপার তাকে ফুসলিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।

ঘটনাটি চোখে পড়ে এক স্কুল শিক্ষিকার। তিনি কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর গালর্স স্কুলের শিক্ষিকা। পরে তিনি মেয়েটির নাম পরিচয় জানতে চেষ্টা করেন। কিন্তু, মেয়েটি তার সঠিক পরিচয় বা ঠিকানা বলতে না পারলেও ভৈরবে তার বাড়ি এমনটি বার বার বলছিলো। আর তার নাম বৃষ্টি।

ভৈরবের কথা শুনে ওই শিক্ষিকা নিজের সঙ্গে বাসে করে ভৈরবে নিয়ে আসেন। ভৈরব এসে ওই শিক্ষিকা পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট ফখরুল আলম আক্কাছের সঙ্গে যোগাযোগ করেন এবং পৌর মেয়রের হেফাজতে মেয়েটিকে রেখে যান। 

এদিকে মেয়েটির পরিচয় শনাক্তেরর জন্য মেয়রের ব্যক্তিগত একান্ত সচিব তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মেয়েটির ছবি পোস্ট করে। কিন্তু এক সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও তার কোনো আত্নীয়-স্বজনের সাড়া মিলছে না।

পৌর মেয়রের হেফাজতে থাকা কিশোরী বৃষ্টি জানান, তার বাবার নাম  সমশের ও মায়ের নাম শাবনুর। তার মা-বাবা কেউ বেঁচে নেই। বোনের নাম মীম এবং সাগর নামে তার একটি ভাই রয়েছে। সে মাদরাসার ছাত্র। গ্রামের নাম কোনোভাবেই মনে করতে পারছেনা সে।

কোনো ব্যক্তি যদি মেয়েটির পরিবারের সন্ধান পান তাহলে ভৈরব পৌরসভার মেয়রের পক্ষ থেকে ০১৭১১-২২৭১১৪ মোবাইল নম্বরে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ